advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

আর কোনো উপায় ছিল না : প্রিন্স হ্যারি

অনলাইন ডেস্ক
২০ জানুয়ারি ২০২০ ১২:৩৬ | আপডেট: ২০ জানুয়ারি ২০২০ ১৬:৫০
লন্ডনে সেন্টেবালে চ্যারিটির এক অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখছেন প্রিন্স হ্যারি। ছবি : সেন্টেবালে চ্যারিটি/টুইটার
advertisement

বিশ্বাসের ওপর ভর করে রাজপরিবারের জ্যেষ্ঠ সদস্যের দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি নিয়েছেন বলে মন্তব্য করেছেন ডিউক অব সাসেক্স প্রিন্স হ্যারি। আর এ ছাড়া তার অন্য কোনো উপায় ছিল না বলেও জানান তিনি।

দেশটির স্থানীয় সময় গতকাল রোববার সন্ধ্যায় লন্ডনে সেন্টেবালে চ্যারিটির এক অনুষ্ঠানে দেওয়া বক্তব্যে প্রিন্স হ্যারি এ কথা জানান।

প্রিন্স হ্যারি বলেন, ‘বহু বছরের চ্যালেঞ্জের পরে বহু মাস ধরে কথাবার্তা চলার পর এবং আমি জানি আমি সব সময় সবকিছু ঠিকঠাক করতেও পারিনি। কিন্তু যেভাবে চলছিল, তাতে আসলেই এ ছাড়া আর কোনো উপায় ছিল না।’

তিনি বলেন, ‘আমি আর মেগান রানি ও রাজপরিবারের প্রতি দায়িত্ব পালন করে যেতে চেয়েছিলাম, কিন্তু সেজন্য কোনো সরকারি অর্থ বরাদ্দ নিতে চাইনি। দুর্ভাগ্যজনকভাবে, সেটা সম্ভব ছিল না।’

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সাবেক অভিনেত্রী স্ত্রী মেগানকে নিয়ে রাজকীয় উপাধি ও দায়িত্ব ত্যাগ করার ঘোষণা দেওয়ার পর এই প্রথম কোনো বক্তৃতা দিলেন প্রিন্স হ্যারি। কিন্তু তিনি জানিয়েছেন, তিনি পরিষ্কার করে বলতে চান যে, তিনি ও মেগান রাজপরিবার থেকে বেরিয়ে যাচ্ছেন না।

প্রিন্স হ্যারি বলেন, ‘যুক্তরাজ্য আমার বাড়ি এবং এই জায়গাটাকে আমি সবচেয়ে ভালোবাসি- এই অনুভূতি কখনো বদলাবে না।’

এর আগে এক যৌথ বিবৃতিতে প্রিন্স হ্যারি এবং তার স্ত্রী মেগান জানান, তারা রাজপরিবারের দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি নিচ্ছেন এবং বলেছেন, তারা আর্থিকভাবে স্বনির্ভর হওয়ার জন্য কাজ করতে চান।

আফ্রিকার এইচআইভি আক্রান্ত শিশুদের জন্য প্রিন্স হ্যারির দাতব্য প্রতিষ্ঠানের এক তহবিল সংগ্রহের অনুষ্ঠানে লন্ডনে কথা বলেন তিনি। এ সময় হ্যারি বলেন, ‘আমি অনুমান করতে পারি গত কয়েক সপ্তাহ ধরে আপনারা আমাদের বিষয়ে কী কী শুনেছেন। কিন্তু আমি চাই আপনারা আমার মুখ থেকেই সত্যটা শুনুন। আমি যতটা বলতে পারি, একজন রাজকুমার বা ডিউক হিসেবে না, কেবল হ্যারি হিসেবে।’

দাদী ব্রিটেনের রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথকে নিজের ‘কমান্ডার ইন চিফ’ সম্বোধন করে প্রিন্স হ্যারি বলেন, ‘তার প্রতি সব সময় আমার পরম শ্রদ্ধা থাকবে।’

শনিবার রানী, রাজপরিবারের ঊর্ধ্বতন সদস্যরা এবং এই জুটির মধ্যে এক আলোচনায় হ্যারি ও মেগান একমত হয়েছেন এখন থেকে তারা আর আনুষ্ঠানিকভাবে ব্রিটিশ রাজপরিবারের প্রতিনিধিত্ব করবেন না।

আসছে বসন্ত থেকে তাদের নামের আগে রাজউপাধি আর ব্যবহৃত হবে না এবং আনুষ্ঠানিক সামরিক দায়িত্বসহ তাদেরকে রাজকীয় সব দায়িত্ব থেকে প্রত্যাহার করা হবে।

এই যুগলের ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে পোস্ট করা বক্তৃতায় প্রিন্স হ্যারি বলেছেন, ‘যখন বিয়ে হয় তখন আমরা খুবই উদ্দীপ্ত ছিলাম, আশাবাদী ছিলাম এবং আমরা রাজপরিবারের সেবা করতে চেয়েছিলাম। সে কারণেই এটা ভেবে আমার খুবই কষ্ট হচ্ছে যে এটা আজ এই পর্যায়ে পৌঁছেছে। আমার স্ত্রী এবং আমার নিজের জন্য এ সিদ্ধান্ত নেওয়াটা খুব সহজ বা হালকা ব্যাপার ছিল না।’

প্রসঙ্গত, গত ৮ ডিসেম্বর হ্যারি এবং মেগান ঘোষণা করেন যে, তারা রাজপরিবারের সামনের কাতারের দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি নিতে চান। তারা এই ঘোষণা দিয়েছিলেন রানি বা রাজপরিবারের কোনো সদস্যের সঙ্গে আগাম আলোচনা ছাড়াই। এজন্যেই এ ঘটনা এত তীব্র বিতর্কের সৃষ্টি করে।

advertisement