advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

জরিমানা ছাড়া গাড়ির কাগজ হালনাগাদের সুযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক
২১ জানুয়ারি ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ২১ জানুয়ারি ২০২০ ১০:২৫
advertisement

যানবাহনের মালিকদের জরিমানা ছাড়াই গাড়ির কাগজপত্র হালনাগাদের সুযোগ দিয়েছে বিআরটিএ। এর ফলে মালিকরা জরিমানা ছাড়াই গাড়ির ফিটনেস, ট্যাক্সটোকেন ও রুট পারমিট নবায়নের সুযোগ পাবেন আগামী ৩০ জুন পর্যন্ত। একই সঙ্গে ড্রাইভিং লাইসেন্সের মূল ফিসও জরিমানা ছাড়া পরিশোধ করা যাবে। গত ৮ জানুয়ারি অর্থ বিভাগের সম্মতি সাপেক্ষে গতকাল সোমবার প্রজ্ঞাপনটি

জারি করে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের বিআরটিএ সংস্থাপন শাখা। প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, খেলাপি যানবাহনের মালিকদের গাড়ির কাগজপত্র নবায়নের আর কোনো সুযোগ দেওয়া হবে না।

এর আগে গত ৫ জানুয়ারি সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের জারি করা আরেক প্রজ্ঞাপনে, ভাড়ায় চলে না এমন প্রাইভেট কার, জিপ ও মাইক্রোবাসের ফিটনেস নবায়নে দুই বছর সময় ধরা হয়েছে। আগে সব ধরনের গাড়ির ফিটনেসের মেয়াদ ছিল এক বছর। তবে নবায়নের ফি বছরভিত্তিক হারে আদায় করার কথা বলা হয়েছে।

বিআরটিএর চেয়ারম্যান ড. কামরুল আহসান আমাদের সময়কে বলেন, গাড়ির কাগজপত্র নবায়ন প্রক্রিয়া সহজ করতে নতুন প্রজ্ঞাপনটি জারি করা হয়েছে। এ জন্য মওকুফ করা হয়েছে জরিমানাও।

নতুন সড়ক আইন অনুযায়ী, কোনো গাড়ির ফিটনেস না থাকলে মালিককে সর্বোচ্চ ২৫ হাজার টাকা জরিমানা এবং ৬ মাসের কারাদণ্ডের বিধান রয়েছে। সর্বশেষ পরিসংখ্যান অনুযায়ী, দেশে ফিটনেসবিহীন গাড়ি রয়েছে ৪ লাখ ৫৩ হাজার ১৯৪টি। এর মধ্যে বাস ১৩ হাজার ৮৯০টি, কার্গো ভ্যান ১ হাজার ৫৪৪টি, কাভার্ড ভ্যান ৫ হাজার ৫৮৯টি, ডেলিভারিভ্যান ৭ হাজার ৫৭টি, হিউম্যান হলার ১৩ হাজার ৫৪৬টি, জিপ ৯ হাজার ৬৬০টি, মাইক্রোবাস ২১ হাজার ৭৮৭টি, মিনিবাস ৮ হাজার ৭৪৮টি, পিকআপ ৪৯ হাজার ৮০৮টি, ট্রাক ৫১ হাজার ৫৭৫টি, প্রাইভেট কার ৪৬ হাজার ১৩৩টি, ট্যাক্সিক্যাব ১৬ হাজার ৯৪৫টি এবং অটোরিকশা ১ লাখ ৫১ হাজার ৫৫৭টি। এ ছাড়াও ট্যাঙ্কার, ট্রাক্টর, অ্যাম্বুলেন্সসহ বিভিন্ন ফিটনেসবিহীন গাড়ি রয়েছে।

 

advertisement