advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

ব্যবসায়ী সম্মেলনে ব্যারিস্টার তাপস
প্রকল্পের টাকা খাওয়া উইপোকার জায়গা হবে না

নিজস্ব প্রতিবেদক
২৩ জানুয়ারি ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ২৩ জানুয়ারি ২০২০ ০০:৫৪
advertisement

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনকে (ডিএসসিসি) সম্পূর্ণ দুর্নীতিমুক্ত সংস্থা হিসেবে গড়ে তোলার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন আওয়ামী লীগের মেয়র পদপ্রার্থী ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস।

তিনি বলেন, আমি আপনাদের সমর্থনে মেয়র নির্বাচিত হতে পারলে ডিএসসিসিতে প্রকল্পের টাকা খাওয়া কোনো উইপোকার জায়গা হবে না। সম্পূর্ণরূপে দুর্নীতিমুক্ত সংস্থা হিসেবে এটিকে গড়ে তুলব। কোনো উৎকোচ, অতিরিক্ত ব্যয় বা হয়রানির কোনো অবকাশ সেখানে থাকবে না। গতকাল বুধবার পুরান ঢাকার কারা কনভেনশন হলে সম্মিলিত ব্যবসায়ী পরিষদের ‘ব্যবসায়ী সম্মেলন’ অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন এফবিসিসিআইয়ের সভাপতি শেখ ফজলে ফাহিমের সভাপতিত্বে সম্মেলনে ছিলেন সংগঠনটির সাবেক

সভাপতি একে আজাদ, কাজী আকরাম উদ্দিন আহমদ, শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন, ব্যবসায়ী নেতা আনোয়ারুল আলম চৌধুরী পারভেজ, রেজাউল করিম রেজনু, সিদ্দিকুর রহমান প্রমুখ।

ফজলে নূর তাপস বলেন, আমাদের প্রধানমন্ত্রী আক্ষেপ করে বলেছেনÑ আমি একটি স্বল্পোন্নত দেশকে উন্নয়নশীল দেশে রূপান্তর করলাম, ৬০ হাজার কোটি টাকার বাজেটকে ৫ লাখ কোটি টাকার বাজেটে উন্নীত করলাম। ৫৬০ ডলার মাথাপিছু আয় থেকে ১৯০০ ডলারে উন্নীত করলাম। এতগুলো প্রকল্প করছি, কিন্তু দুঃখের সঙ্গে দেখছি আমার প্রকল্পের টাকা উইপোকায় খেয়ে নেয়। ২০৪১ সালকে লক্ষ্য ধরে উন্নয়ন পরিকল্পনা গ্রহণ করবেন জানিয়ে ব্যারিস্টার তাপস বলেন, আমাদের প্রত্যেকটি অবকাঠামো, রাস্তা-নর্দমা যেটিই করি না কেন, সেটির মান নিরূপণ করে অন্ততপক্ষে ১০ বছরের স্থায়িত্ব নিশ্চিত করা হবে।

তিনি বলেন, আমি নিজেও একজন ব্যবসায়ী। ব্যবসায়ীদের সমস্যা আমি অনুধাবন করতে পারি। একজন ব্যবসায়ী কী চিন্তা করেন এবং তার দৈনন্দিন কী চিন্তা-চেতনা থাকে, কী সমস্যা থাকে, সেটি আমি অনুধাবন করি। এটুকু আপনাদের বলি, আমার কাছে কোনো জাদুর কাঠি বা জাদুর টুপিও নেই। আমি একজন বাস্তবভিত্তিক ব্যক্তি। আপনাদের কোনো জাদুকরী স্বপ্ন দেখাব না। আমার দেওয়া পাঁচটি ধাপের মধ্যে কোনো স্বপ্ন নেই, পঞ্চমের বাস্তবতা আছে। আমি এটুকু বলতে পারি, ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন হবে বাস্তবেই ব্যবসায়ীদের সেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান।

ব্যবসায়ীদের ট্রেড লাইসেন্স পাওয়ার হয়রানির অবসান ঘটিয়ে পাঁচ কর্মদিবসের মধ্যে তা দেওয়ার প্রতিশ্রুতিও দেন তিনি। হোল্ডিং ট্যাক্স আর না বাড়িয়ে কমানোর কথাও বলেন তিনি।

তাপস বলেন, হোল্ডিং ট্যাক্স বৃদ্ধি করা হবে না। বরং কিছু ক্ষেত্রে সমন্বয় করার জন্য কমতে পারে, বাড়বে না। আমাদের অনেক সেবা আছে যেগুলো আমরা এখনো দিই না, সেগুলো ঢাকাবাসীর কাছে পৌঁছে দেব। আগামী দুই বছরের মধ্যে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নিজের পায়ে দাঁড়াবে। ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নিজের অর্থায়নে ঢাকাবাসীর কাছে সেবা পৌঁছাবে। ঢাকার গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় গাড়ি রাখার স্থান নির্মাণেরও আশ্বাস দেন আওয়ামী লীগের এ প্রার্থী।

ব্যবসায়ীদের দেওয়া ২৮টি সমস্যার তালিকা দেখে তা সমাধানে আশাবাদ প্রকাশ করে তিনি বলেন, আমাকে তালিকা দেওয়া হয়েছে, ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দের কিছু মতামত দেওয়া হয়েছে। এখানে মাত্র ২৮টি সমস্যার কথা বলা হয়েছে, আমি বিচলিত নই। আমি ভেবেছিলাম ২৮০০ সমস্যা হয়তোবা দেবেন।

advertisement
Evall
advertisement