advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

ইশরাক হোসেন
ঢাকা হবে শান্তির জনপদ, স্থান হবে না সন্ত্রাসীদের

নিজস্ব প্রতিবেদক
২৩ জানুয়ারি ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ২৩ জানুয়ারি ২০২০ ০০:৫৪
advertisement

পুলিশ প্রশাসনকে জাতীয় গুরুদায়িত্ব নির্ভয়ে পালন করার আহ্বান জানিয়েছেন ঢাকা দক্ষিণে বিএনপির মেয়রপ্রার্থী ইঞ্জি. ইশরাক হোসেন। তিনি বলেন, জনগণের পক্ষ হয়ে কাজ করুন, জনগণ আপনাদের পাশে থাকবে। ঢাকা শহর হবে শান্তির জনপদ। এখানে কোনো সন্ত্রাসীর স্থান হবে না। গতকাল বুধবার বেলা সাড়ে ১১টায় পশ্চিম হাজারীবাগের ঝাউচরবাজারে গণসংযোগকালে তিনি এ কথা বলেন। ইশরাকের প্রচারে অংশ নিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য

অধ্যাপক ড. এমাজউদ্দীন আহমদ বলেন, ইশরাক যোগ্য প্রার্থী, গণতান্ত্রিক ব্যবস্থার পুনরুদ্ধারের সংগ্রামে লিপ্ত হয়েছেন। মনেপ্রাণে সবাই মিলে এ আশা পোষণ করি। আমরা বয়স্করা যেখানে ব্যর্থ হয়েছি, ইশরাক হোসেনের মাধ্যমে আমরা সেটি পূর্ণ করব।

ইশরাক বলেন, আজকে এ শহরটা ধ্বংস করে ফেলা হয়েছে। এই ধ্বংসাত্মক অবস্থা থেকে উত্তরণের জন্য আমাদের একটা পরিবর্তন দরকার। ১ ফেব্রুয়ারি নগরবাসীর জন্য একটা সুবর্ণ সুযোগ এসেছে। বিভিন্ন স্থানে ধানের শীষ প্রতীকের গণসংযোগ ও সভা-সমাবেশে বাধা দেওয়া হচ্ছে উল্লেখ করে ইশরাক বলেন, আজকেও (বুধবার) এখানে আসার আগে আমাদের প্রচারে বাধা দেওয়ার চেষ্টা হয়েছিল। কোনো ষড়যন্ত্র ও বাধা আমরা মানব না। এই দেশটা আমাদের সবার। আমরা কারও জমিদারিত্ব মানব না।

তিনি বলেন, পুলিশের উপস্থিতিতে গত মঙ্গলবার উত্তরের মেয়রপ্রার্থী তাবিথ আউয়ালের প্রচারে ন্যক্কারজনকভাবে হামলা চালানো হয়েছে। ২৪ ঘণ্টার বেশি হতে চলল, কিন্তু এখন পর্যন্ত কাউকে গ্রেপ্তার হতে দেখলাম না।

গতকাল তিনি কামরাঙ্গীরচর, চকবাজার, ইসলামবাগ, লালবাগসহ ২৭, ২৯, ৩০, ৩১, ৫৫, ৫৬ ও ৫৭ নম্বর ওয়ার্ডের বিভিন্ন এলাকায় প্রচার চালান। তার সঙ্গে গণসংযোগে আরও ছিলেন বিএনপি নেতা হাবীব-উন নবী খান সোহেল, মীর সরাফত আলী সপু, কাজী আবুল বাশার, সুলতান সালাউদ্দিন টুকু, মোরতাজুল করিম বাদরু, মাহবুবুল হাসান ভূঁইয়া পিংকু প্রমুখ।

advertisement
Evall
advertisement