advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

অবৈধ সম্পদের মামলায় এনু ৪ দিনের রিমান্ডে

আদালত প্রতিবেদক
২৩ জানুয়ারি ২০২০ ১৪:৪০ | আপডেট: ২৩ জানুয়ারি ২০২০ ১৪:৪০
গেন্ডারিয়া থানা আওয়ামী লীগের সাবেক নেতা এনামুল হক এনু। ফাইল ছবি
advertisement

ক্যাসিনোকাণ্ডে জড়িত গেন্ডারিয়া থানা আওয়ামী লীগের সাবেক নেতা এনামুল হক এনুকে অবৈধ সম্পদ অর্জনের মামলায় চার দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। আজ বৃহস্পতিবার ঢাকা মহানগর সিনিয়র বিশেষ জজ কে এম ইমরুল কায়েশ এই আদেশ দেন।

এর আগে মামলাটিতে এনুর সাত দিনের রিমান্ড আবেদন করেছিল দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। শুনানিকালে এনুকে কারাগার থেকে আদালতে হাজির করা হয়।

আসামি পক্ষে ঢাকা বারের সাবেক সভাপতি সাইদুর রহমান মানিক রিমান্ড বাতিল করে এনুর জামিন আবেদন করেন। শুনানি শেষে আদালত তার জামিন নামঞ্জুর করেন।

অন্যদিকে দুদকের পক্ষে ছিলেন প্রসিকিউটর মাহমুদ হোসেন জাহাঙ্গীর ও মীর আহমেদ আলী সালাম।

গত ১৯ জানুয়ারি একই আদালত এনুকে এই মামলায় গ্রেপ্তার দেখায়। এদিন তার ভাই রুপন ভূঁইয়াকে অবৈধ সম্পদ অর্জনের পৃথক মামলায় দেখানোসহ সাত দিনের রিমান্ড আবেদন করে দুদক। শুনানি শেষে আদালত তার পাঁচ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

এর আগে গত ১৪ জানুয়ারি দুই ভাইকে ঢাকার কেরানীগঞ্জ থেকে গ্রেপ্তার করে সিআইডি। তার আগে ক্যাসিনোবিরোধী অভিযানের অংশ হিসেবে গত বছরের ২৪ সেপ্টেম্বর এনামুল হক এনু ও রুপনের বাসায় অভিযান চালায় র‌্যাব।

অভিযানে এনুর বাসা থেকে  নগদ ৮৮ লাখ ৩৫ হাজার ৮০০ টাকা এবং এক কোটি ২০ লাখ টাকা মূল্যমানের ২ কেজি ৯০৮ দশমিক ৯৫ গ্রাম ওজনের ১৯ প্রকার স্বর্ণালংকার জব্দ করা হয়।

দুদকের অনুসন্ধানে এনামুল হক এনু ও রুপন ভূঁইয়ার ৩৫ কোটি টাকার অবৈধ সম্পদের খোঁজ পাওয়ার পর গত ২৩ অক্টোবর পৃথক দুই মামলা দায়ের করে দুদক।

এনামুল হক এনুর বিরুদ্ধে ২১ কোটি ৮৯ লাখ ৪৩ হাজার টাকার জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগে মামলা করেন দুদকের সহকারী পরিচালক মামুনুর রশীদ চৌধুরী।

অন্যদিকে অসৎ উদ্দেশ্যে অবৈধ পন্থায় নামে-বেনামে ১৪ কোটি ১২ লাখ ৯৫ হাজার ৮৮২ টাকার জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগে রুপন ভূঁইয়ার বিরুদ্ধে দুদকের অপর সহকারী পরিচালক মোহাম্মদ নেয়ামুল আহসান গাজী মামলা করেন।

advertisement