advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

হার দিয়ে টাইগারদের সূচনা

স্পোর্টস ডেস্ক
২৪ জানুয়ারি ২০২০ ১৭:১৪ | আপডেট: ২৫ জানুয়ারি ২০২০ ০১:০৬
ছবি : বিসিবি
advertisement

পাকিস্তানের বিপক্ষে তিন টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচে পাঁচ উইকেটের বড় ব্যবধানে হার দিয়ে শুরু করেছে বাংলাদেশ। লাহোরে ব্যাটে-বলে লড়াইও করতে পারেননি রিয়াদরা, বাংলাদেশের একমাত্র প্রাপ্তি ম্যাচটিকে শেষ ওভার পর্যন্ত নিয়ে যাওয়া। পাকিস্তানের হয়ে সর্বোচ্চ অপরাজিত ৫৮ রানের ইনিংস খেলেন শোয়েব মালিক। টাইগারদের হয়ে সর্বোচ্চ দুই উইকেট নেন শফিউল ইসলাম। 

ভয়ংকর জুটি ভেঙে স্বস্তি এনে দিলেন বিপ্লব

আহসান আলী ও শোয়েব মালিকের গড়া তৃতীয় উইকেটের জুটি ভেঙে টাইগার শিবিরে স্বস্তি এনে দিলেন আমিনুল ইসলাম বিপ্লব। দুজন তৃতীয় উইকেটের জুটিতে ৪১ রান যোগ করেন। আউট হওয়ার আগে আহসানের ব্যাট থেকে আসে ৩৬ রান। 

শফিউলের পরেই মোস্তাফিজের আঘাত

বাবর আজমকে ইনিংসের প্রথম ওভারেই সাজঘরে পাঠিয়ে শুভসূচনা এনে দিয়েছিলেন শফিউল ইসলাম। সেই ধারাবাহিকতা বজায় রেখে ইনিংসের পঞ্চম ওভারে মোহাম্মদ হাফিজকে সাজঘরে পাঠান মোস্তাফিজ। আউট হওয়ার আগে হাফিজের ব্যাট থেকে আসে ১৭ রান। 

শুরুতেই শফিউলের আঘাত

বাংলদেশ বড় রানের পুঁজি গড়তে পারেনি, তাই শুরুতেই দ্রুত উইকেট তুলে নেওয়া ছাড়া কোনো বিকল্প ছিলো না বোলারদের সামনে। এই কাজটাই করলেন শফিউল ইসলাম। ইনিংসের দ্বিতীয় বলেই পাকিস্তান অধিনায়ককে বাবর আজমকে সাজঘরে পাঠালেন। 

১৪২ রানের লক্ষ্য দিলো বাংলাদেশ 

শুরুতে নাইম-তামিম ও শেষদিকে মাহমুদউল্লাহর অপরাজিত ১৯ রানের ইনিংসে পাকিস্তানকে ১৪২ রানের টার্গেট দিয়েছে বাংলাদেশ। নির্ধারিত ২০ ওভার শেষে পাঁচ উইকেট হারিয়ে ১৪১ রান করে টাইগাররা। সর্বোচ্চ ৪৩ রান করেন নাইম। মাহমুদউল্লাহ ১৯ ও মিঠুন ৫ রানে অপরাজিত ছিলেন। হাতে উইকেট থাকার পরও বড় স্কোরের টার্গেট দেওয়ার সুযোগ কাজে লাগাতে পারেননি রিয়াদরা। 

পরিসংখ্যান পাকিস্তানের বিপক্ষে 

লাহোরের গাদ্দাফি স্টেডিয়ামে সর্বশেষ তিনটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচের তিনটিতেই হেরেছে পাকিস্তান। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে এই সিরিজে ধবলধোলাই হয় স্বাগতিক পাকিস্তান। এই তিন ম্যাচে পাকিস্তান সর্বোচ্চ রান করে ১৪৭ ও সর্বনিম্ন রান করে ১০১। বাংলাদেশের বিপক্ষে জয় পেতে হলে করতে হবে ১৪২ রান। 

এক ওভারে দুই উইকেট হারাল বাংলাদেশ

লিটন দাস আউট হওয়ার পরের বলেই মোহাম্মদ নাইম শাদাবের শিকার হয়ে সাজঘরে ফেরেন। তার ব্যাট থেকে আসে ৪১ বলে ৪৩ রান। ইনিংসের ১৫ তম ওভারে পরপর দুই উইকেট হারিয়ে ধাক্কা খায় টাইগাররা।

পাকিস্তানের বিপক্ষে খেলতে নেমেই তামিমের রেকর্ড

পাঁচ মাসেরও বেশি  সময় পর জাতীয় দলের হয়ে খেলতে নেমেছেন তামিম ইকবাল। পাকিস্তানের বিপক্ষে তিন টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচ দিয়ে তিনি আবারও ফিরেছেন মাঠে। লাহোরের গাদ্দাফি স্টেডিয়ামে খেলতে নেমেই নতুন রেকর্ড গড়েছেন তামিম। বাংলাদেশের জার্সিতে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে এই বাঁহাতি ওপেনারই এখন সর্বোচ্চ রানের মালিক। বাংলাদেশ সময় তিনটায় শুরু হওয়া এই ম্যাচে হারিস রউপকে চার মেরে এই মাইল ফলক অর্জন করেন তামিম। এই ম্যাচসহ ৭২ ম্যাচে তার ব্যাট থেকে আসে ১৫৯৫ রান।

লিটনও ফিরলেন রানআউট হয়ে

তামিমের পর লিটন দাস ও ফিরলেন রান আউট হয়ে। শাদাব খানের সরাসরি থ্রোতে তিনি মাত্র ১২ রান করে সাজঘরে ফেরেন।

ফিরে গেলেন তামিম

দুর্দান্ত শুরুর পর রানআউটের শিকার হয়ে সাজঘরে ফিরে গেলেন তামিম ইকবাল। মোহাম্মদ রিজওয়ান তাকে রানআউট করেন। আউট হওয়ার আগে তার ব্যাট থেকে আসে ৩৪ বলে ৩৯ রান।

একাদশে পাঁচ ওপেনার, তিন পেসার

বাংলাদেশ একাদশ সাজিয়েছে পাঁচ স্বীকৃত ওপেনার তামিম ইকবাল, মোহাম্মদ নাঈম শেখ, আফিফ হোসেন, লিটন দাস ও সৌম সরকারকে নিয়ে। বোলিং আক্রমণে সাজানো হয়েছে তিন পেসার মোস্তাফিজুর রহমান, শফিউল ইসলাম ও আল আমীন হোসাইন ও এক স্পিনার আমিনুল ইসলাম বিপ্লবকে নিয়ে।

পাকিস্তানের দুজনের অভিষেক

এদিকে পাকিস্তানের আহসান আলী ও হারিস রউপের অভিষেক হচ্ছে আজ। বাবরের আজমের নেতৃত্বে শোয়েব মালিক-মোহাম্মদ হাফিজের মতো অভিজ্ঞ ক্রিকেটারদের  সঙ্গে তরুণদের নিয়ে একাদশ সাজিয়েছে।

টস জিতে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ

পাকিস্তানের বিপক্ষে তিন ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথমটি খেলতে নেমেছে বাংলাদেশ। লাহোরের গাদ্দাফি স্টেডিয়ামে এই ম্যাচে টস জিতে ব্যাটিং নিয়েছেন বাংলাদেশ অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। বাংলাদেশ সময় বিকেল তিনটায় খেলাটি শুরু হয়।

advertisement