advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

হাত-পা বেঁধে গৃহবধূর চুল কাটলেন স্বামী ও শ্বশুর-শাশুড়ি!

ভাঙ্গুড়া (পাবনা) প্রতিনিধি
২৪ জানুয়ারি ২০২০ ২০:৩৮ | আপডেট: ২৪ জানুয়ারি ২০২০ ২০:৩৮
হাত-পা বেঁধে গৃহবধূর চুল কেটে দেন স্বামী ও শ্বশুর-শাশুড়ি। ছবি : আমাদের সময়
advertisement

পাবনার ভাঙ্গুড়া উপজেলায় যৌতুকের দাবিতে স্ত্রীকে নির্যাতনের পর চুল কেটে দেওয়ার অভিযোগে শাহেদ ফকির (৩৮) নামের এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে ভাঙ্গুড়ার খান মরিচ ইউনিয়নের সুলতানপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আজ শুক্রবার সকালে ভুক্তভোগী নারী বাদী হয়ে ভাঙ্গুড়া থানায় মামলা দায়ের করেন। পরে শাহেদ ফকিরকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

মামলার এজাহার থেকে জানা গেছে, যৌতুক দাবি করে বিভিন্ন সময় স্ত্রীকে মারধর করতেন শাহেদ ও তার বাবা-মা। গতকাল রাতেও ভুক্তভোগীকে মারধর করেন তারা। গভীর রাতে আবার তারা ওই নারীকে মারধর করে মাথার চুল কেটে দেন।

ঘটনার পর আজ ভোরের দিকে ভুক্তভোগী তার স্বামীর বাড়ি থেকে পালিয়ে এক প্রতিবেশীর বাড়িতে আশ্রয় নেন।

ওই নারী আমাদের সময়কে জানান, বিয়ের পর তাদের দুটি সন্তান হয়। তবুও যৌতুকের টাকার জন্য তাকে নির্যাতন করা হতো। তার স্বামী শাহেদ একজন মাদকসেবী এবং পরকীয়ায় আসক্ত।

ভুক্তভোগী আরও জানান, শাহেদ ছাড়াও তার শ্বশুর মালেক ফকির ও শাশুড়ি শাহিদা খাতুন বিনা কারণে তাকে মারধর করত। গতকাল রাতে তারা সবাই মিলে হাত-পা বেঁধে চুল কেটে দেয় গৃহবধূর। পরে পালিয়ে এসে সকালে তিনি ভাঙ্গুড়া থানায় স্বামী-শ্বশুর-শাশুড়ির বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন।

ভাঙ্গুড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাসুদ রানা বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, গৃহবধূ নিজেই মামলা দায়ের করেন। শাহেদ ফকিরকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বাকিদেরও গ্রেপ্তারের ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

advertisement