advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

সচিবালয়ে সাংবাদিকদের ওবায়দুল কাদের
বহিরাগতদের এনে জড়ো করছে বিএনপি

নিজস্ব প্রতিবেদক
৩০ জানুয়ারি ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ৩০ জানুয়ারি ২০২০ ০০:৫৭
advertisement

ঢাকা সিটি করপোরেশন নির্বাচন উপলক্ষে বহিরাগতরা রাজধানীতে এসে জড়ো হচ্ছে বলে মনে করেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, নির্বাচনের পরিবেশ এখন পর্যন্ত ভালো আছে। তবে একটা বিষয় খুব উদ্বেগজনক, সেটা হচ্ছে নির্বাচনকে সমনে রেখে বহিরাগতদের জড়ো করা। এর মধ্যে অস্ত্রধারীরাও রয়েছে। নির্বাচনের দিন কেন্দ্র পাহারার নামে সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা ভোটের পরিবেশে বিঘ্ন ঘটাতে পারে, সুন্দর পরিবেশ নষ্ট করতে পারে।

গতকাল সচিবালয়ে সাংবাদিকদের তিনি বলেন, ‘খবর রয়েছেÑ নির্বাচনের দিন কেন্দ্রে পাহারার নামে সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা পরিবেশ বিঘ্নিত করতে পারে। ভোটারদের ভোট কেন্দ্রে আসতে বাধা দিতে পারে। সেই অবস্থায় নির্বাচন কমিশনকে বাড়তি সতর্কতা বজায় রাখতে হবে।’

বহিরাগতদের উপস্থিতি কোন দলের বেশিÑ সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আমাদের কাছে

ইনফরমেশন আছে যে বিএনপি সারা বাংলাদেশ থেকে বহিরাগতদের এনে ঢাকায় জড়ো করছে। এদের মধ্যে চিহ্নিত সন্ত্রাসী, দাগি সন্ত্রাসীরাও রয়েছে। এটা সুষ্ঠু নির্বাচনের পথে অন্তরায় হয়ে দাঁড়াতে পারে।’

কাদের বলেন, বিএনপি আওয়ামী লীগবিরোধী শক্তির একটা প্ল্যাটফর্ম। কাজেই এ শক্তিকে একেবারে দুর্বল বা ভঙ্গুর মনে করা সমীচীন নয়। তাদেরও সমর্থন আছে। দলের অবস্থা খারাপ বলে সন্ত্রাসী থাকবে না, এমন তো নয়। তাদের সমর্থক সারা বাংলাদেশে আছে, এটা হল বাস্তবতা।

আগের নির্বাচনে বিএনপির এজেন্টদের কেন্দ্র থেকে বের করে দেওয়ার বিষয়ে তিনি বলেন, বিএনপি তো জাতীয় নির্বাচনে এজেন্ট দিতেই পারেনি। পরে বলেছে বের করে দেওয়া হয়েছে। তাদের এজেন্ট ছিল নাÑ সেটার দায়-দায়িত্ব কি আমরা নেব? বিএনপিকে জিজ্ঞেস করুন, কেন তারা এজেন্ট দিতে পারেনি, তাদের কর্মী সংকট কেন? এজেন্ট আসার পথে আমরা কোনো বাধা দেব না দলীয়ভাবে।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘নির্বাচনে ৬৭ জন বিদেশি এবং ১ হাজারের বেশি পর্যবেক্ষক থাকবেন। তারা তো বিষয়গুলো মনিটর করবে।

ঢাকার দুই সিটির মেয়র প্রার্থীরা ইশতেহারে যেসব প্রতিশ্রুতি দিচ্ছেন, তা বাস্তবায়ন সম্ভব কিনাÑ এমন প্রশ্নে সেতুমন্ত্রী বলেন, ভূরি ভূরি প্রতিশ্রুতি আমাদের দেশের নির্বাচনের ইশতেহারে থাকে, বাস্তবায়ন হয় না তেমনও না। এর তো টার্গেট থাকে না, নির্দিষ্ট কোনো টাইম ফ্রেম তো থাকে না। ইশতেহারের প্রতিশ্রুতি কবে নাগাদ বাস্তবায়ন করবেন তা জানানো উচিত।

advertisement
Evaly
advertisement