advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

বাংলাদেশের খেলোয়াড়দের বয়স বেশি ছিল, দাবি সাবেক ভারতীয় অধিনায়কের

স্পোটর্স ডেস্ক
১১ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ২১:১২ | আপডেট: ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ০৯:১৭
সাবেক ভারতীয় অধিনায়ক বিষেণ সিং বেদি (ডানে)
advertisement

অনূর্ধ্ব-১৯ ক্রিকেটে বিশ্বজয় করেছে বাংলাদেশ। অনন্য এই অর্জনের পর বিশ্বজুড়ে চলছে বাংলাদেশ বন্দনা। অপরদিকে ভারতের হারে চরম হতাশ দেশটির ভক্তরা। এরই মধ্যে এক বিতর্কিত মন্তব্য করে বসলেন সাবেক ভারতীয় অধিনায়ক বিষেণ সিং বেদি।

তার মতে, যুব বিশ্বকাপের সেমিতে খেলা এশিয়ার দেশগুলোর খেলোয়াড়দের প্রত্যেকের বয়স উনিশের বেশি। ভারতীয় জাতীয় দৈনিক মিড ডে’কে দেওয়া এক সাক্ষাতকারে এমন মন্তব্য করেন দেশটির সাবেক এই স্পিনার।

এবার বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে ছিল বাংলাদেশ, পাকিস্তান ও ভারত। এই দেশগুলোর খেলোয়াড়দের দিকেই সন্দেহের দৃষ্টিতে তাকিয়েছেন ভারতের সাবেক এ অধিনায়ক। তিনি বলেন, ‘ভারত, পাকিস্তান, বাংলাদেশ—এশিয়ার যেসব দেশ সেমিতে উঠেছে, তাদের প্রত্যেক খেলোয়াড়ের বয়স উনিশের বেশি। আপনি এক মাইল দূরে দাঁড়িয়ে থেকেও এটা বুঝতে পারবেন।’

তিনি আরও বলেন, ‘কয়েক বছর আগে রাহুল দ্রাবিড়ের বয়স বাড়িয়ে খেলানো নিয়ে প্রশ্ন উঠেছিল। আমাদের হয়েছেটা কী? আমি অনেক হতাশ।’

এ ছাড়া ম্যাচের পর দুই দলের খেলোয়াড়দের ধাক্কাধাক্কি দেখেও বিরক্ত হয়েছেন বেদি। রকিবুল হাসান জয়সূচক শেষ রানটি নেওয়ার পর উল্লাসে মাতেন বাংলাদেশের খেলোয়াড়েরা। এ সময়ে মাঠে থাকা ভারতীয়দের সঙ্গে কথা-কাটাকাটি, এমনকি সামান্য ধাক্কাধাক্কিও হয়েছে। এ বিষয়ে দুঃখ প্রকাশ করেছিলেন বাংলাদেশের অধিনায়ক আকবর আলী। কিন্তু অধিনায়কের ক্ষমা প্রার্থনাতেও খুব একটা লাভ হয়নি। ওই ঘটনায় বাংলাদেশ ও ভারতের পাঁচ ক্রিকেটারকে শাস্তি দিয়েছে আইসিসি।

বাংলাদেশের খেলোয়াড়দের মধ্যে শাস্তিপ্রাপ্তরা হলেন- তওহিদ হৃদয়, শামিম হোসেন এবং রাকিবুল হাসান। এদের প্রত্যেকেই আইসিসির কোড অব কন্ডাক্ট ভঙ্গ করেছেন এবং প্রত্যেককে ছয়টি করে ডিমেরিট পয়েন্ট দেওয়া হয়েছে।

অন্যদিকে, ভারতের আকাশ সিং এবং রবি বিষ্ণয়কে পাঁচটি করে ডিমেরিট পয়েন্ট দেওয়া হয়েছে।

স্বাভাবিকভাবেই ঘটনাটি পছন্দ হয়নি বেদির। তিনি বলেন, ‘দেখুন, বাংলাদেশ যা করেছে, সেটা তাদের সমস্যা। আমাদের ছেলেরা যা করেছে, সেটা আমাদের সমস্যা। কোনোভাবেই এমন ব্যবহারের কোনো যুক্তি থাকতে পারে না। তাদের ব্যবহার ছিল অত্যন্ত জঘন্য ও নিন্দনীয়।’

প্রসঙ্গত, গত রোববার দক্ষিণ আফ্রিকার পচেফস্ট্রুমে ভারতকে ৩ উইকেটে হারিয়ে বিশ্বকাপের শিরোপা জেতে বাংলাদেশ। ম্যাচ শেষে হতাশ ভারতীয়দের সামনে যখন বাংলাদেশ যুব দল উদযাপনে ব্যস্ত তখন দুদলের খেলোয়াড়দের জটলা ও ধাক্কাধাক্কি করতে দেখা যায়।

advertisement