advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

মানবতাবিরোধী অপরাধে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আব্দুস সুবহানের মৃত্যু

ঢামেক প্রতিবেদক
১৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ১৬:৫৬ | আপডেট: ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ২১:৫৩
মাওলানা আব্দুস সুবহান। ছবি : সংগৃহীত
advertisement

একাত্তরে মানবতাবিরোধী অপরাধে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত, পাবনার সাবেক সংসদ সদস্য মাওলানা আব্দুস সুবহান (৮০) চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেছেন। আজ শুক্রবার দেড়টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়।

ঢামেক হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ পরিদর্শক মো. বাচ্চু মিয়া বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।  তিনি জানান, অসুস্থতাবোধ করায় গত ২৪ জানুয়ারি তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। তিনি ঢামেক হাসপাতালের ৭০১ ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন ছিলেন। চিকিৎসাধীন অবস্থায় আজ দুপুরে তার মৃত্যু হয়।

তিনি আরও জানান, আবদুস সুবহানের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য ঢামেক হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে।

জামায়াতের নায়েবে আমির মাওলানা আবদুস সুবহান পাকিস্তান আমলে পাবনা জেলা জামায়াতের আমির ও কেন্দ্রীয় শুরা সদস্য ছিলেন। তিনি পাবনা আলিয়া মাদ্রাসার সাবেক হেড মাওলানা ছিলেন।

২০১৫ সালের ১৮ ফেব্রুয়ারি জামায়াতের এই প্রভাবশালী নেতাকে যুদ্ধাপরাধের দায়ে মৃত্যুদণ্ড দেন মানবতাবিরোধী অপরাধের বিচারে গঠিত আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল। তার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগের মধ্যে রয়েছে- ঈশ্বরদী কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ থেকে বের করে ২০ জনকে হত্যা, সাহাপুর গ্রামে ছয়জনকে হত্যা, সুজানগর থানার ১৫টি গ্রামে কয়েকশ মানুষকে হত্যা, পাকশী ইউনিয়নের যুক্তিতলা গ্রামে পাঁচজনকে হত্যা, থানার ভাড়ারা এবং দেবোত্তর গ্রামে অপহরণ ও হত্যা।

মাওলানা সুবহানের জন্ম ১৯৩৬ সালের ১৯ ফেব্রুয়ারি সুজানগর থানার মানিকহাটি ইউনিয়নের তৈলকুণ্ডি গ্রামে। তার বাবার নাম শেখ নাঈমুদ্দিন, মায়ের নাম নুরানী বেগম।

advertisement