advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ে র‌্যাগিংয়ে জড়িত ৫ শিক্ষার্থীকে বহিষ্কার

ত্রিশাল (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি
১৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ১৯:০৬ | আপডেট: ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ১৯:০৬
advertisement

ময়মনসিংহের ত্রিশালে অবস্থিত জাতীয় কবি কাজী নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথমবর্ষের দুই শিক্ষার্থীকে র‌্যাগিং করায় এক ছাত্রকে তিন বছর ও দুই ছাত্রকে দুই বছর এবং দুই ছাত্রীকে এক বছরের জন্য বহিষ্কার করা হয়েছে।

গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. এ এইচ এম মোস্তাফিজুর রহমানের সভাপতিত্বে বিশ্ববিদ্যালয়ের ৬৭ তম সিন্ডিকেট সভায় এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এ ছাড়া আরেক ছাত্রীকে একই অপরাধে শোকজ করা হয়েছে এবং বিশ্ববিদ্যালয়ে র‌্যাগিং নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার কৃষিবিদ মো. হুমায়ুন  কবীর জানান, বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের প্রথম বর্ষের ছাত্র ইমরানকে র‌্যাগিং করার অভিযোগে স্থানীয় সরকার ও নগর উন্নয়ন দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র জাকির হোসেনকে তিন বছর, একই বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র তানভীরুল ইসলাম এবং ইলেক্ট্রিক্যাল ও ইলেক্ট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের তৃতীয় বর্ষের ছাত্র মেহেদী হাসানকে দুই বছরের জন্য বহিষ্কার করা হয়। এ ছাড়া থিয়েটার অ্যান্ড পারফরমেন্স স্টাডিজ বিভাগের প্রথম বর্ষের ছাত্রী ফারহানা আম্বেরীন লিওনাকে র‌্যাগিং করার অভিযোগে সমাজবিজ্ঞান বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী তোয়াবা নুসরাত মীম ও শায়রা তাসনিম আনিকাকে এক বছরের জন্য বহিষ্কার করা হয়েছে। এ ছাড়া চারুকলা বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী মৌমিতা পারভীনকে অভিভাবকসহ মুচলেকা দেওয়ার শর্তে সতর্ক করে অভিযোগ থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে।

প্রসঙ্গত, গত বৃহস্পতিবার (৬ ফেব্রুয়ারি) মায়ের সামনে থেকে ডেকে নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের পাশের একটি ছাত্রীবাসে থিয়েটার অ্যান্ড পারফরমেন্স স্টাডিজ বিভাগের প্রথম বর্ষের ছাত্রী ফারহানা আম্বেরীন লিওনাকে আচরণ শেখানোর নামে মাত্রাতিরিক্ত র‌্যাগিং করা হয়। এসময় প্রচন্ড মানসিক চাপে সে মাথা ঘুরিয়ে পড়ে যায়। পরে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ তাকে প্রথমে ত্রিশাল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও পরে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে। এ ছাড়া র‌্যাগিংয়ের শিকার হয়ে অজ্ঞান হয়ে যাওয়ায় কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের প্রথম বর্ষের ছাত্র ইমরানকেও ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ইমরান বর্তমানে ঢাকার একটি মানসিক চিকিৎসা কেন্দ্রে চিকিৎসা নিচ্ছে।

advertisement
Evall
advertisement