advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

মির্জা ফখরুল
মানবিক কারণে মুক্তি দিন

নিজস্ব প্রতিবেদক
১৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ০০:২৩
advertisement

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তি প্রসঙ্গে দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, এ মুহূর্তে দেশনেত্রীর শরীরের অবস্থার যে গুরুতর অবণতি হয়েছে তার চিকিৎসার জন্য তাকে বিদেশে পাঠাতে পরিবার থেকে আবেদন জানানো হয়েছে। সরকার বা অন্য কারও এখন এগুলো নিয়ে রাজনীতি না করে সম্পূর্ণ মানবিক কারণে তাকে মুক্তি দেওয়াটা অত্যন্ত জরুরি বলে আমি মনে করি। গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলের স্থায়ী কমিটিসহ সিনিয়র আইনজীবীদের নিয়ে বৈঠক শেষে তিনি এসব কথা বলেন। এদিন সকালে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের বক্তব্যের জবাবে মির্জা ফখরুল এ প্রতিক্রিয়া দেন।

বৈঠকে লন্ডন থেকে স্কাইপেতে যুক্ত ছিলেন দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান। আরও উপস্থিত ছিলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, ব্যারিস্টার

জমিরউদ্দিন সরকার, মির্জা আব্বাস, ড. আবদুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু। এ ছাড়া খালেদা জিয়ার আইনজীবীদের মধ্যে ছিলেন অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন, অ্যাডভোকেট জয়নাল আবেদীন, অ্যাডভোকেট ফজলুর রহমান, ব্যারিস্টার মাহবুবউদ্দিন খোকন ও ব্যারিস্টার কায়সার কামাল।

ফখরুল বলেন, ‘আমাদের কথা পরিষ্কার, ম্যাডামের (খালেদা জিয়া) মুক্তির দাবিটা নিয়ে আমরা আজকে নয়, দুই বছর ধরেই কোর্টে যাচ্ছি, কথা বলছি, রাস্তায় নামছি, চিৎকার করছি। দেশবাসী এ মুহূর্তে ম্যাডামের মুক্তির দাবি করছে। একই সঙ্গে আজকে তার পরিবারও দাবি করছে। কয়েকদিন আগেই তারা লিখিতভাবে বিএসএমএমইউর ভাইস চ্যান্সলরকে তার অ্যাডভান্স ট্রিটমেন্টের জন্য চিঠি দিয়েছেন।’ ওবায়দুল কাদেরের সঙ্গে টেলিফোনে আলাপের বিষয়ে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘উনি (ওবায়দুল কাদের) কী বলেছেন এটা উনাকে জিজ্ঞেস করলে বেটার হবে। চেয়ারপারসনের আইনজীবীদের সঙ্গে তার মামলার বিষয়ে বৈঠকে আলোচনা হয়েছে। সেখানে খালেদা জিয়ার জামিনের বিষয়ে রিভিউ আবেদন করা হবে।’

advertisement