advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

দাড়ি-বোরকার জন্যও আটক হয়েছেন উইঘুররা

অনলাইন ডেস্ক
১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ১৬:৪৮ | আপডেট: ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ১৬:৪৮
উইঘুরের মুসলিমরা আটক হওয়ার নথি ফাঁস হয়েছে
advertisement

চীনের উইঘুরের অসংখ্য মুসলিমকে বিভিন্ন অন্তরীণ শিবিরে আটকে রাখার তথ্য ফাঁস হয়েছে। এতে বলা হয়েছে- দাড়ি রাখা, বোরকা পরা, বিদেশ যাত্রার ইচ্ছায় পাসপোর্টের আবেদন কিংবা শুধু ইন্টারনেটে বিদেশি ওয়েবসাইট ব্রাউজিংয়ের কারণে মুসলিম অধ্যূষিত এলাকাটির লোকজনকে আটক করা হয়েছে।

‘ফাঁস হওয়া’ ওই নথির তথ্য দিয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যম বিবিসি। প্রতিবেদনটিতে শিনজিয়াং প্রদেশের শিবিরগুলোতে লাখ লাখ মুসলমানের ভাগ্য কীভাবে নির্ধারিত হচ্ছে- তা তুলে ধরা হয়েছে নথিতে, যা বিবিসি বড় প্রমাণ হিসেবে বিবেচনা করছে।

চীনের দূর পশ্চিমাঞ্চল শিনজিয়াংয়ের তিন হাজারেরও বেশি বাসিন্দার ব্যক্তিগত ও তাদের দৈনন্দিন জীবনাচরণের বিস্তৃত তথ্য আছে ১৩৭ পৃষ্ঠার এ নথিতে।

উইঘুরের মুসলিম ব্যক্তিদের প্রার্থনার সময়, ধরন, কীভাবে তারা পোশাক পরেন, কাদের সঙ্গে যোগাযোগ করেন কিংবা তাদের পরিবারের সদস্যদের আচরণ কেমন সেসবও লিপিবদ্ধ আছে ওই নথিতে।

বিবিসি জানিয়েছে- গত বছর শিনজিয়াং থেকে ফাঁস হওয়া অত্যন্ত সংবেদনশীল বিভিন্ন নথি যেভাবে আন্তর্জাতিক বিভিন্ন সংস্থা ও গণমাধ্যমের কাছে এসেছিল, ঠিক একইভাবে কিছু মানুষের ব্যক্তিগত ঝুঁকির ওপর ভিত্তি করেই এ নথিটিও ফাঁস হয়।

শিনজিয়াংয়ে চীনের নীতি বিষয়ক বিশেষজ্ঞ, ওয়াশিংটনভিত্তিক ভিক্টিমস অব কমিউনিজম মেমোরিয়াল ফাউন্ডেশনের জ্যেষ্ঠ ফেলো ড. আদ্রিয়ান জেনজ নথিটিকে আসল বলে মনে করছেন। তিনি বলেন, ‘কোনো সরকারি সিল বা চিহ্ন না থাকলেও ধর্মীয় বিশ্বাসের চর্চার কারণে বেইজিং যে নির্যাতন করছে ও শাস্তি দিচ্ছে অসাধারণ এ নথি তার সবচেয়ে শক্তিশালী প্রমাণ হাজির করেছে।’

advertisement
Evall
advertisement