advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

বাংলাদেশে সুনির্দিষ্ট তামাক কর নীতির পক্ষে অর্থনীতিবীদরা

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি
১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ১৫:০৫ | আপডেট: ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ১৫:০৬
advertisement

সরকারের রাজস্ব বৃদ্ধি ও মানুষের স্বাস্থ্য রক্ষায় বাংলাদেশে সুনির্দিষ্ট তামাক কর নীতি প্রয়োজন বলে অভিমত প্রকাশ করেছেন দেশের বিভিন্ন অর্থনীতিবীদরা। গতকাল মঙ্গলবার বিকেল ৩টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কলাভবনে অর্থনৈতিক গবেষণা ব্যুরোর কনফারেন্স হলে দেশের বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের শিক্ষকদের নিয়ে আয়োজিত তামাক কর নীতিমালা বিষয়ক এক মতবিনিময় সভায় এ অভিমত প্রকাশ করেন তারা।

সভায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক এবং অর্থনৈতিক গবেষণা ব্যুরোর ফোকাল পারসন ড. রুমানা হক বলেন, চার স্তরের তামাক কর থাকায় সিগারেট কোম্পানিগুলো নানাভাবে ট্যাক্স ফাঁকি দিচ্ছে। সুনির্দিষ্ট তামাক কর নীতিমালা না থাকার কারণে সাধারণ মানুষ ধূমপান না ছেড়ে একটি ব্র্যান্ড থেকে আরেকটি ব্র্যান্ডের দিকে ধাবিত হচ্ছে। একইসঙ্গে তামাক পণ্যের স্বল্প মূল্যের কারণে অল্প বয়সীদের মধ্যে ধূমপানের হার বৃদ্ধি পাচ্ছে। দেশ ও সাধারণ মানুষের স্বাস্থ্যের কথা বিবেচনা করে বাংলাদেশে সুনির্দিষ্ট তামাক কর নীতি প্রণয়ন অবশ্যম্ভাবী হয়ে পড়েছে।

তিনি আরও বলেন, সিগারেট ও বিড়ির ওপর সুনির্দিষ্ট কর নীতিমালা প্রণয়নের পাশাপাশি ধোঁয়াহীন তামাক পণ্যের ওপরও উচ্চ হারে করারোপ করতে হবে। একইসঙ্গে অখ্যাত নানা তামাক কোম্পানিকে চিহ্নিত করে তাদের ওপর নজরদারি বাড়াতে হবে।

ঢাবির অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক সাহাদত হোসেন সিদ্দিকী বলেন, সরকারের যদি লক্ষ্য থাকে বাংলাদেশকে তামাক মুক্ত করবে তাহলে অবশ্যই সবার আগে ব্রিটিশ আমেরিকান ট্যোবাকো থেকে সরকারি মালিকানা প্রত্যাহার করতে হবে। এটা নিশ্চিত না হলে তামাক প্রশ্নে কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে পৌঁছানো যাবে না। একইসঙ্গে তামাক মুক্ত দেশ গড়ার স্বপ্ন থাকলে এখনই উচ্চ কর নীতি এবং সুনির্দিষ্ট কর নীতি মালা প্রণয়ন করতে হবে।

এ সময় ঢাবির অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক এবং অর্থনৈতিক গবেষণা ব্যুরোর পরিচালক অধ্যাপক ড. নাজমা বেগম জরুরিভিত্তিতে সুনির্দিষ্ট তামাক কর প্রণয়ণের গুরুত্ব তুলে ধরেন। এ ছাড়া মত বিনিময় সভায় বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের শিক্ষকবৃন্দ এবং আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সংস্থা দ্য ইউনিয়নের কারিগরি পরামর্শক অ্যাডভোকেট সৈয়দ মাহবুবুল আলম তামাক কর বিষয়ে তাদের মতামত তুলে ধরেন।

advertisement
Evall
advertisement