advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

অধিনায়কত্ব হারাচ্ছেন মাশরাফি

ক্রীড়া প্রতিবেদক
১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ১৭:০৪ | আপডেট: ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ২২:০০
মাশরাফি বিন মোর্ত্তজা। পুরোনো ছবি
advertisement

বিশ্বকাপের পর থেকে বাংলাদেশের জার্সি গায়ে কোনো ম্যাচ খেলতে না নামলেও ওয়ানডে অধিনায়ক হিসেবে আছেন মাশরাফি বিন মোর্ত্তজা। অবশেষে শেষ হতে যাচ্ছে মাশরাফি যুগ। অধিনায়ক হিসেবে ঘরের মাঠে জিম্বাবুয়ে সিরিজের পর তাকে আর দেখা যাবে না চিরচেনা সেই লুকে।

আজ বুধবার বিকেলে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন জানিয়েছেন এই তথ্য। সে মোতাবেক ঘরের মাঠে সিলেটে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে তিন ওয়ানডেতে বাংলাদেশকে শেষবারের মতো নেতৃত্ব দেবেন মাশরাফি। অল্প সময়ের মধ্যে ২০২৩ বিশ্বকাপকে কেন্দ্র করে নতুন অধিনায়ক ঘোষণা করবে বিসিবি।

আগামী মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহে বোর্ড মিটিংয়ে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। এই সিরিজ শেষে মাশরাফি যে অধিনায়কত্ব হারাচ্ছেন; তা এক প্রকার নিশ্চিত। যদি তাকে দলে খেলতে হয় তাহলে পারফর্মেন্স করেই খেলতে হবে।

বিসিবিতে উপস্থিত সাংবাদিকদের নাজমুল হাসান পাপন বলেন, ‘আমরা খুব দ্রুত সিদ্ধান্ত নেব। সামনে যে বিশ্বকাপ আছে তার আগমুহূর্তে তো অধিনায়ক ঘোষণা করতে পারব না। সেটার জন্য দল ও অধিনায়ক দুই বছর আগেই গড়ে ফেলব। আমার হাতে খুব বেশি সময় নেই।’

পাপন বলেন, ‘এক মাসের মধ্যেই সিদ্ধান্ত নিয়ে নেব। অধিনায়ক আমরা ঘোষণা করে দেব। তবে খেলোয়াড় হিসেবে যদি দলে থাকতে হয় তাহলে পারফর্মেন্স করেই থাকতে হবে, দলে থাকার জন্য সব ক্রাইটেরিয়া পূরণ করতে হবে।’

পাপন মনে করেন মাশরাফির এখন সিদ্ধান্ত নেওয়া উচিৎ আর কতদিন খেলবে। তিনি বলেন, ‘ওর (মাশরাফির) সময় এসেছে সিদ্ধান্ত নেওয়ার, আর কতদিন খেলবে। এখানে অনেক কিছু জড়িত। আমার ধারণা মাশরাফি এই সিরিজে থাকছে ডেফিনেটলি। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে খেলবে বলে আমার ধারণা। ও যদি ফিট না হয় এটা ভিন্ন কথা। তবে ওর জন্য আমরা এতটা কড়াকড়ি করতে যাচ্ছি না।’

অধিনায়ক হিসেবে মাশারাফি ৮৫ খেলে ৯৮ উইকেট নিয়েছেন। সর্বোচ্চ ২৯ রান দিয়ে চার উইকেট নিয়েছেন। ওভার প্রতি দিয়েছেন ৫.১২ রান।

অধিনায়ক না থাকা অবস্থায় ১৩২ ওয়ানডেতে নিয়েছেন ১৬৮ উইকেট। সেরা বোলিং ফিগার ২৬ রান দিয়ে ছয় উইকেট। ওভার প্রতি দিয়েছেন ৪.৭১ রান করে।

তার নেতৃত্বেই বাংলাদেশ সাফল্য দেখছিল একদিনের ক্রিকেটে। ২০১৫ বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালের পর ২০১৭ সালের চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির সেমিফাইনালে খেলে বাংলাদেশ। আইসিসির কোনো আসরে এটাই বাংলাদেশের সেরা অর্জন।

তার প্রশংসা করে পাপন বলেন, ‘মাশরাফির মত অধিনায়ক এই মুহুর্তে আমাদের হাতে নেই। এটা সত্যি এবং আমি সবসময় বলেও আসছি। আমাদের ক্রিকেটে কিছু কিছু ব্যাপার পরিবর্তন হচ্ছে। বাংলাদেশ ক্রিকেট আজকে যে জায়গায় এসেছিল; মাশরাফির অবদান অস্বীকার করার কোনো সুযোগ নেই। ওর অধিনায়কত্ব খুবই গুরুত্বপূর্ণ ছিল।’

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে এক মার্চ থেকে শুরু হবে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ। সবগুলো ম্যাচই হবে সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে। এই সিরিজকে কেন্দ্র করে মাশরাফি প্রতিদিনই মিরপুর আসছেন, সময় কাটাচ্ছেন জিমে।

advertisement
Evall
advertisement