advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

১৮৫ কোটি টাকার ঘড়ি চুরির অভিযোগে ভারতীয় গ্রেপ্তার

অনলাইন ডেস্ক
২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ১৪:০১ | আপডেট: ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ১৫:০৩
প্রতীকী ছবি
advertisement

সংযুক্ত আরব আমিরাতে মূল্যবান ঘড়ি চুরির অভিযোগে ২৬ বছর বয়সী এক ভারতীয় পরিচ্ছন্নতা কর্মীকে বিচারের আওতায় আনা হয়েছে। তিনি ৮৬টি মূল্যবান ঘড়ি চুরি করেছেন, যার মূল্য ৮ দশমিক ৩ মিলিয়ন দিরহাম (বাংলাদেশি মুদ্রায় ১৮৫ কোটি ৫৫ লাখ টাকা)।

দুবাইভিত্তিক সংবাদমাধ্যম ‘খালিজ টাইমস’ এর খবরে বলা হয়েছে, ওই ভারতীয় ঘড়িগুলোকে দোকানের বাক্স থেকে নিয়ে আবর্জনা রাখার বিনে ফেলে রাখতো এবং পরবর্তীতে ওই আবর্জনা দোকানের বাইরে নিয়ে যাওয়া হলে সেখান থেকে ঘড়িগুলো উদ্ধার করতেন। এরপর ঘড়িগুলো দুই পাকিস্তানি চোরাচালানকারীর কাছে সস্তায় বিক্রি করে দিতেন। ওই ভারতীয়কে আটক করা হলেও চোরাচালানকারী দুই পাকিস্তানি এখনও পলাতক রয়েছে।

দোকানের মালিক ৫১ বছর বয়সী ইরাকি নাগরিক বলেন, ‘আমার গোল্ড স্কয়ারে কয়েকটি ঘড়ি ও জুয়েলারির দোকান রয়েছে। গত বছরের ২৫ ডিসেম্বর এক কর্মচারী আবর্জনার বিনের মধ্যে ৩০ হাজার দিরহাম মূল্যের একটি ঘড়ি কুড়িয়ে পান। প্রথমে আমি বিষয়টি তেমন গুরুত্ব না দিলেও পরবর্তীতে সিসিটিভি ফুটেজ দেখে বুঝতে পারি যে ওই ঘড়িটি আবর্জনার মধ্যে ফেলে রেখেছিল ওই পরিচ্ছন্নতা কর্মী। পরবর্তীতে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে তিনি চুরির ঘটনা স্বীকার করেন।’

গত ৬ জানুয়ারি ঘড়ি চুরির বিষয়ে দেশটির নাইফ পুলিশ স্টেশনে দোকানের মালিক ওই ভারতীয় পরিচ্ছন্নতা কর্মীর বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করেন। আগামী ২৬ জানুয়ারি ওই ব্যক্তির মামলায় রায় দেবেন দুবাই আদালত।

advertisement