advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

হত্যার দুই যুগ পার
ওসমানীনগরের দুই আসামির সাজা বহাল

রনিক পাল ওসমানীনগর
২২ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ২৩:৫১
advertisement

সিলেটের ওসমানীনগরের বশির আহমদ হত্যার শিকার হয়েছিলেন দুই যুগ আগে। দীর্ঘ ২৪ বছর পর এই মামলার দুই আসামির যাবজ্জীবন সাজা বহাল রেখেছেন আদালত। গত বৃহস্পতিবার সিলেট জেলা দায়রা তৃতীয় আদালত এই আদেশ দেন। সাজাপ্রাপ্তরা হলেন- বালাগঞ্জ উপজেলার অজিত শুক্লবৈদ্য (৫০) ও হবিগঞ্জ সদর উপজেলার মুসলিম মিয়া (৪৮)।

জানা গেছে, ১৯৯৬ সালের ১৭ জুন রাতে অজিত শুক্লবৈদ্য তার ভাতিজা অসুস্থ বলে উপজেলার ব্রাহ্মণ গ্রামের মস্তফা মিয়ার ছেলে বশির আহমদকে তাদের বাড়িতে নিয়ে

যাওয়ার কথা বলেন। এ সময় অজিতের সঙ্গে থাকা মুসলিম মিয়া ও বশির মিয়া মোট তিনজন নৌকা নিয়ে সোনাপুরের উদ্দেশে রওনা হন। কালাশাড়া হাওরে যাওয়ার পর নৌকার বৈঠা দিয়ে বশির আহমদের মাথায় আঘাত করতে থাকেন দুইজন। এ সময় বশিরের মৃত্যু নিশ্চিত করে কালাশাড়া হাওয়রে কচুরিপানা দিয়ে লাশ ঢেকে চলে যান। পরদিন তাদের দেওয়া তথ্যমতে বশির আহমদের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

এ ঘটনায় ১৯৯৬ সালের ১৯ জুন নিহতের মামা মাহমদ আলী বাদী হয়ে বালাগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলায় অজিত শুক্লবৈদ্য ও মুসলিম মিয়াকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। পরবর্তীতে ২০০৩ সালে এ মামলায় দুই জনের যাবজ্জীবন সাজা হয়। ২০০৭ সালে উচ্চ আদালতে আপিল করে জামিন পান আসামিরা। জামিন পাওয়ার পর থেকে মুসলিম মিয়া পলাতক রয়েছেন। বৃহস্পতিবার মামলার বিচারকাজ শেষে আদালতে উপস্থিত থাকা অজিত শুক্লবৈদ্যকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন আদালত। অবশেষে দীর্ঘ ২৪ বছর পর এই হত্যা মামলায় আবারও দুই আসামির যাবজ্জীবন প্রদান করেন আদালত।

মামলার রায়ে সন্তোষ প্রকাশ করে নিহত বশির আহমদের ছোট ভাই হেলাল আহমদ বলেন, দীর্ঘ ২৪ বছর অপেক্ষার পর আবারও আমার ভাইয়ের হত্যা মামলার বিচার হয়েছে। আসামিদের সাজা হওয়ায় আমাদের এতদিনের চাপা ক্ষোভের অবসান হলো। আমি প্রশাসনের কাছে আবেদন করছি পলাতক মুসলিম মিয়াকে খুঁজে বের করার জন্য।

advertisement
Evall
advertisement