advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

বাংলাদেশের নিরাপদ সড়কে বাড়তি ৭৮০ কোটি ডলার দরকার : বিশ্বব্যাংক

২২ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ১২:২৫
আপডেট: ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ১২:৪৫
advertisement

এক দশকের মধ্যে সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণহানি কমিয়ে অর্ধেকে নামিয়ে আনতে বাংলাদেশের বাড়তি ৭৮০ কোটি ডলারের বিনিয়োগ প্রয়োজন। বিশ্বব্যাংকের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য তুলে ধরা হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার স্টকহোমে অনুষ্ঠিত সড়ক নিরাপত্তা বিষয়কমন্ত্রী পর্যায়ের তৃতীয় আন্তর্জাতিক সম্মেলনে প্রকাশিত ‘বাংলাদেশে সড়ক নিরাপত্তা নিশ্চিত করা’ শীর্ষক প্রতিবেদনে এ প্রাক্কলন দেওয়া হয়।
সড়কে উচ্চ মৃত্যুহারের পেছনে পদ্ধতিগত, লক্ষ্যভিত্তিক ও টেকসই সড়ক নিরাপত্তা কর্মসূচিতে দীর্ঘমেয়াদি বিনিয়োগের খরাকে দায়ী করে বিনিয়োগ বাড়ানোর ওপর জোর দেওয়া হয়েছে।

দক্ষিণ এশিয়ার বাংলাদেশ, ভুটান, ভারত ও নেপালের সড়ক নিরাপত্তা নিয়ে বৃহত্তর পরিসরে গবেষণার অংশ হিসেবে তৈরি এই প্রতিবেদনে সড়ক ও যানবাহনকে আরও নিরাপদ করার পাশাপাশি জাতীয় পর্যায়ে কর্মপরিকল্পনা গ্রহণকে সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দিতে বলা হয়েছে। দক্ষিণ এশিয়ার মোট জনসংখ্যার ৮৬, যানবাহনের ৯২ ও সড়কে প্রাণহানি ঘটনার ৮৭ শতাংশই এ অঞ্চলে ঘটে।
বিশ্বব্যাংকের দক্ষিণ এশিয়ার ভাইস প্রেসিডেন্ট হার্টউইগ শ্যাফার বলেন, বিগত বছরগুলোয় দ্রুত অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি দক্ষিণ এশিয়ায় যানবাহনের সংখ্যা ব্যাপক বাড়িয়েছে। ফলে সড়কে মৃত্যুর সংখ্যাও বেড়েছে এবং অর্থনৈতিক সুযোগ হাতছাড়া হয়ে যাচ্ছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, বাংলাদেশের সড়ক দুর্ঘটনায় মৃত্যুর মাথাপিছু বার্ষিক হার উচ্চ আয়ের দেশগুলোর তুলনায় দ্বিগুণ। শিশু ও কর্মক্ষম জনগোষ্ঠী বাংলাদেশে সড়ক দুর্ঘটনায় সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত বলে প্রতিবেদনে উঠে এসেছে। ২০১৭ সালে সড়ক দুর্ঘটনায় শিশুমৃত্যু চতুর্থ শীর্ষ কারণ হয়ে উঠেছে, যা ১৯৯০ সালে নবম স্থানে ছিল। প্রতিবেদনে নিরাপদ সড়ক অবকাঠামোর ক্ষেত্রে এমন নকশায় দৃষ্টি দেওয়ার ওপর জোর দেওয়া হয়েছে।

সম্পাদনা আশরাফ

 

advertisement
Evall
advertisement