advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

ঢাকা বার নির্বাচন  : ২৮ ঘণ্টা পর ভোট গণনা শুরু, ফলাফল কাল

আদালত প্রতিবেদক
২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ২১:৪২ | আপডেট: ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ২১:৪২
advertisement

ঢাকা আইনজীবী সমিতির ২০২০-২০২১ কার্যনির্বাহী পরিষদ গঠনের নির্বাচনের ভোট গণনা ভোট গ্রহণের ২৮ ঘণ্টা পর আজ শুক্রবার রাত ৯টা থেকে শুরু হয়েছে।

দুইদিন ব্যাপী এ নির্বাচনে গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেল ৫টায় গ্রহণ শেষ হওয়ার পর নির্বাচন কমিশন আজ শুক্রবার সকাল ৮টা থেকে প্রথমে ভোট সটিং শেষে ভোট গণনার শুরু করার কথা জানিয়েছিল নির্বাচন কমিশন। কিন্তু আজ সকাল থেকে সে কার্যক্রম শুরু হয়নি। সেখানে সংটিং শুরু হয় বেলা সাড়ে ১২টা থেকে। সটিং শেষে বেলা সোয়া ২টা থেকে বিএনপি ও আওয়ামী লীগের প্যানেল থেকে ৩০ জন করে পর্যবেক্ষকের উপস্থিতিতে ভোট গণনা শুরু করতে যায় কমিশন। কিন্তু সাদা প্যানেলের পর্যবেক্ষকদের উপস্থিতি কম থাকায় তা বন্ধ হয়ে যায়। এরপর সিদ্ধান্ত হয় ১০০ জন করে পর্যবেক্ষকদের উপস্থিতিতে ভোট গণনা হবে। সে অনুযায়ী উভয় পক্ষের সম্মতিতে আজ রাত ৯টা থেকে ভোট গণনা শুরু হয়।

গত বুধ ও বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত এ নির্বাচনে ১৮ হাজার ১৫০ জন ভোটারের মধ্যে দুইদিনে মোট ৯ হাজার ২৯৯ জন ভোটাধিকার প্রয়োগ করেছেন। ধারণা করা হচ্ছে, ভোটের পলাফল আসতে শনিবার সকাল হবে।

এ নির্বাচনে প্রথমদিন ৩ হাজার ৭৮০ জন এবং দ্বিতীয়দিন ৫ হাজার ৫১৯ জন ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন। নির্বাচনে বিএনপি সমর্থিত নীল প্যানেল এবং আওয়ামী লীগ সমর্থিত সাদা প্যানেলে মোট ৪৬ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। নির্বাচনে সিনিয়র অ্যাডভোকেট মুন্সি ফখরুল ইসলাম প্রধান নির্বাচন কমিশনারের দায়িত্ব পালন করেন। যার অধীনে ১০ জন কমিশনার এবং ১০০ জন সদস্য রয়েছেন।

নির্বাচনে বিএনপি সমর্থিত নীল প্যানেলের সভাপতি প্রার্থী সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মো. ইকবাল হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী অ্যাডভোকেট মো. হোসেন আলী খান হাসান এবং আওয়ামী লীগ সমর্থিত সাদা প্যানেলের সভাপতি পদে অ্যাডভোকেট মো. মোশারফ হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক পদে অ্যাডভোকেট মো. আহসান তারিক প্রতিদ্বনিদ্বতা করছেন। এ ছাড়াও এ নির্বাচনে ১০টি সম্পাদকীয় এবং ১১টি সদস্য পদে উভয় প্যানেলে সমান সংক্ষোক প্রার্থী রয়েছে।

সাদা প্যানেলের অন্যান্য পদের প্রার্থীরা হলেন, সিনিয়র সহ-সভাপতি পদে অ্যাডভোকেট মো. আবদুল কাদের, সহ-সভাপতি পদে মো. ইমাম হোসেন মঞ্জু, ট্রেজারার পদে মো. আনিসুর রহমান আনিস, সিনিয়র সহ- সাধারণ সম্পাদক পদে একেএম হাবিবুর রহমান চুন্নু, সহ-সাধারণ সম্পাদক পদে সিকদার মোহাম্মদ আক্তারুজ্জামান হিমেল, লাইব্রেরি সম্পাদক পদে মো. আতাউর রহমান খান (রুকু), সাংস্কৃতিক সম্পাদক পদে তাসলিমা আক্তার রীতা, অফিস সম্পাদক পদে আবা খালেদ মাহমুদ দাইয়ান, ক্রীড়া সম্পাদক পদে সাইফুল ইসলাম সুমন, সমাজ কল্যাণ সম্পাদক পদে শায়লা পারভিন পিয়া, সদস্য পদে এএইচএম শফিকুল ইসলাম সোহাগ, মো. বাহারুল ইসলাম বাহার, অ্যাডভোকেট মো. মাসুম মৃধা, মো. সাব্বির হোসেন, সাইফুল ইসলাম, মো. মেহেদী হাসান মেরিন, মো. রমজান আলী সরদার রানা, এবিএম ফয়সাল সারোয়ার, মো. মাইন উদ্দিন, সুলতানা রাজিয়া রুমা এবং ইমতিয়াজ আহমেদ প্রিন্স।

অন্যদিকে নীল প্যানেলের অন্যান্য পদের প্রার্থীরা হলেন, সিনিয়র সহ-সভাপতি পদে কামাল উদ্দিন, সহ-সভাপতি পদে মো. আনিসুর রহমান, কোষাধ্যক্ষ পদে আব্দুল আল মামুন, সিনিয়র সহ সাধারণ সম্পাদক নিহার হোসেন ফারুক, সহ-সাধারণ সম্পাদক শাকায়েত উল্লাহ ভূইয়া (ছোটন), লাইব্রেরী সম্পাদক পদে রফিকুল ইসলাম, সাংস্কৃতিক সম্পাদক পদে হাবিবা কাদের মিলি, অফিস সম্পাদক পদে এইচএম মাসুম, ক্রীড়া সম্পাদক মনিরুল ইসলাম আকাশ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক মাহবুবু হাসান রানা, সদস্য পদে মোহাম্মদ আনোয়ার পারভেজ (শামীম), মোছা. তাছলিমা আক্তার, কাজী আফরোজা সুলতানা (ইভা), ইয়াছিন মিয়া, মো. আব্দুল বাসেত রাখী, আজহার উদ্দিন রিপন, এমআরকে রাসেল, মো. তানভীর হাসান সোহেল, মো. হোসনী মোবারক, বাবুল আক্তার বাবু ও সাদেকুল ইসলাম ভূইয়া (জাদু)। 

প্রসঙ্গত, ২০১৯-২০২০ কার্যবর্ষের নির্বাচনে ২৫টি পদের মধ্যে সাদা প্যানেল সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকসহ ১৮টি পদে এবং নীল প্যানেল তিনটি সম্পাদকীয় পদসহ নয়টি পদে জয়লাভ করে।

advertisement
Evall
advertisement