advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

‘সালাম’ দিয়ে থামায়, চাকু দেখিয়ে কেড়ে নেয় সর্বস্ব

নিজস্ব প্রতিবেদক
২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ১৩:৩৯ | আপডেট: ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ২০:৩৩
উদ্ধারকৃত চাকু ও মোবাইল ফোন। ছবি : আমাদের সময়
advertisement

রাজধানীতে একটি বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে ছিনতাইয়ের সঙ্গে জড়িত ৪২ জনকে গ্রেপ্তার করেছে ঢাকা মহানগর পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগ (ডিবি)। গতকাল শুক্রবার রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

আজ শনিবার দুপুরে ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা জানিয়েছেন ডিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার (ডিবি) মো. আবদুল বাতেন।

তিনি জানান, গ্রেপ্তারকৃত আসামিরা ছিনতাইকারী ও সালাম পার্টি দলের সক্রিয় সদস্য। গ্রেপ্তারের সময় তাদের হেফাজত থেকে ৭৪টি বিভিন্ন কোম্পানির মোবাইল ফোন, একটি ট্যাব ও একটি ল্যাপটপ উদ্ধার করা হয়। এ ছাড়া ছিনতাইয়ের কাজে ব্যবহৃত ১৩টি ছুরি ও দুটি চাপাতি উদ্ধার করা হয়।

ডিবির এই কর্মকর্তা জানান, এই চক্রের সদস্যরা রাজধানীর সাতরাস্তা, নাবিস্কো, মহাখালী বাস টার্মিনাল, মহাখালী রেলক্রসিং, বনানী, গুলশান-১, গুলশান লিংক রোড, রামপুরা ব্রীজ, ধানমন্ডি, বংশাল, চকবাজার, কলাবাগান, গুলিস্তান, যাত্রাবাড়ী, সায়েদাবাদ, নিউমার্কেটসহ বিভিন্ন এলাকায় গলিপথগুলোতে যাতায়াতকারী রিকশা বা পায়ে হাঁটা যাত্রীদের ছুরি দেখিয়ে সর্বস্ব ছিনতাই করে।

এ জন্য তারা তাদের সুবিধামত কোনো স্থানে রিকশার যাত্রী অথবা পথচারীদের ‘সালাম’ দেয়। এমনভাবে সালাম দেয় যেন তারা পরস্পর পরস্পরের পূর্ব পরিচিত। সালাম পেয়ে ওই পথচারী থামলে তারা কাছে গিয়ে চাকু দেখিয়ে ও ভয় দেখিয়ে সর্বস্ব কেড়ে নেয়।

আব্দুল বাতেন জানান, ছিনতাইকৃত মোবাইলগুলো তারা মোবাইল পার্টসের দোকানে বিক্রি করেন। ধরা পড়া ঠেকাতে দোকানদাররা এসব চোরাই মোবাইল কিনে ঠিকই, কিন্তু মোবাইল বিক্রি করে না। তারা চোরাই মোবাইলের ক্ষুদ্র যন্ত্রাংশ বিক্রি করে। এমনকি দোকানিরা মোবাইলের মাদারবোর্ড ও আইএমইআই নম্বর পাওয়া যাবে এমন পার্টসও বিক্রি করে না।

বেশ কয়েকটি ছিনতাইয়ের ঘটনার তদন্তে নেমে এ চক্রগুলোর সন্ধান পায় ডিবি। এর সঙ্গে জড়িত অন্যদেরও গ্রেপ্তারের চেষ্টা অব্যাহত আছে বলেও জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।

advertisement
Evall
advertisement