advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

আমি কি চোর, প্রশ্ন মাশরাফির

ক্রীড়া প্রতিবেদক,সিলেট থেকে
২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ১৪:৪৮ | আপডেট: ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ২০:৫০
সাংবাদিকদের প্রশ্নে খেপে যান মাশরাফি। ছবি : আমাদের সময়
advertisement

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের আগে আলোচনার তুঙ্গে ছিল অধিনায়ক মাশরাফি বিন মোর্ত্তজার অবসর ভাবনা। আগামীকাল রোববার ওয়ানডে ম্যাচের মধ্য দিয়ে শুরু হবে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে এই সিরিজ।

এই ম্যাচকে সামনে রেখে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন মাশরাফি। স্বভাবত শুরু থেকেই তার অবসর নিয়ে প্রশ্ন ওঠে। কিন্তু মাশরাফি সাফ জানিয়ে দিলেন, তিনি যে সিদ্ধান্ত নেবেন-তা বোর্ডকেই জানাবেন।

আজ শনিবার দুপুরে সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে অবসর নিয়ে এক প্রশ্নে খেপে যান মাশরাফি। নিজের পারফরম্যান্স নিয়ে আত্মসম্মানবোধের প্রশ্ন তোলায়  উল্টো সাংবাদিককে মাশরাফি বলেন, ‘আমি কি চোর?’

‘আত্মসম্মানবোধ বা লজ্জা, আমি কি চুরি করি মাঠে? আমি কি চোর? খেলার সাথে লজ্জা আত্মসম্মান আমি মেলাতে পারি না। এত জায়গায় এত চুরি হচ্ছে, এত চামারি হচ্ছে তাদের লজ্জা নাই? আমি মাঠে এসে উইকেট না পেলে আমার লজ্জা লাগবে? আমি কি চোর। উইকেট আমি নাই-ই পেতে পারি, আমার সমালোচনা আপনারা করবেন, দর্শকরা করবেন, লজ্জা পেতে হবে কেন?-এভাবেই বলছিলেন মাশরাফি।

বিশ্বকাপের পর থেকে বাংলাদেশের জার্সি গায়ে কোনো ম্যাচ খেলতে না নামলেও মাশরাফি বিন মোর্ত্তজা ওয়ানডে অধিনায়ক হিসেবে আছেন। ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন জানিয়েছিলেন, সিলেটে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে তিন ওয়ানডেতে বাংলাদেশকে শেষবারের মতো নেতৃত্ব দেবেন মাশরাফি। অল্প সময়ের মধ্যে ২০২৩ বিশ্বকাপকে কেন্দ্র করে নতুন অধিনায়ক ঘোষণা করবে বিসিবি।

বিসিবি সভাপতির বক্তব্য তুলেই ওই প্রশ্ন করা হয়। আগামী মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহে বোর্ড মিটিংয়ে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। এই সিরিজ শেষে মাশরাফি যে অধিনায়কত্ব হারাচ্ছেন, তা এক প্রকার নিশ্চিত। যদি তাকে দলে খেলতে হয় তাহলে পারফরম্যান্স করেই খেলতে হবে, এমন কথা জানিয়েছিলেন পাপন।

বিসিবিতে উপস্থিত সাংবাদিকদের নাজমুল হাসান পাপন বলেছিলেন, ‘আমরা খুব দ্রুত সিদ্ধান্ত নেব। সামনে যে বিশ্বকাপ আছে তার আগ মুহূর্তে তো অধিনায়ক ঘোষণা করতে পারব না। সেটার জন্য দল ও অধিনায়ক দুই বছর আগেই গড়ে ফেলব। আমার হাতে খুব বেশি সময় নেই।’

তিনি আরও বলেছিলেন, ‘এক মাসের মধ্যেই সিদ্ধান্ত নিয়ে নেব। অধিনায়ক আমরা ঘোষণা করে দেব। তবে খেলোয়াড় হিসেবে যদি দলে থাকতে হয় তাহলে পারফরম্যান্স করেই থাকতে হবে, দলে থাকার জন্য সব ক্রাইটেরিয়া পূরণ করতে হবে।’

বিসিবি সভাপতি মনে করেন, মাশরাফির এখন সিদ্ধান্ত নেওয়া উচিত আর কতদিন খেলবেন। মাশরাফিও আজ একই কথা জানিয়েছেন, যা সিদ্ধান্ত তিনি বোর্ডকেই জানাবেন।

অধিনায়ক হিসেবে মাশারাফি ৮৫ ম্যাচ খেলে ৯৮ উইকেট নিয়েছেন। সর্বোচ্চ ২৯ রান দিয়ে পেয়েছেন চার উইকেট। ওভার প্রতি দিয়েছেন ৫ দশমিক ১২ রান।

অধিনায়ক না থাকা অবস্থায় ১৩২ ওয়ানডেতে নিয়েছেন ১৬৮ উইকেট। সেরা বোলিং ফিগার ২৬ রান দিয়ে ছয় উইকেট। ওভার প্রতি দিয়েছেন ৪ দশমিক ৭১ রান করে।

তার নেতৃত্বেই এক দিনের ক্রিকেটে বাংলাদেশ সাফল্য দেখেছিল। ২০১৫ বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালের পর ২০১৭ সালের চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির সেমিফাইনালে খেলে বাংলাদেশ। আইসিসির কোনো আসরে এটাই বাংলাদেশের সেরা অর্জন।

advertisement
Evaly
advertisement