advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

ঘরে বসে ফিটনেস ধরে রাখতে পারেন ক্রিকেটাররা

ক্রীড়া প্রতিবেদক
২৭ মার্চ ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ২৬ মার্চ ২০২০ ২৩:২৮
advertisement

প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের কারণে পুরো পৃথিবী স্তব্ধ। লাশের মিছিল হচ্ছে। ভাইরাসের সংক্রামণ ছড়িয়ে পড়ছে দেশে দেশে। কোনো মানুষই স্বস্তিতে নেই। করোনা ভাইরাসে আতঙ্কিত সবাই। এ ভাইরাসের বিস্তার এড়াতে সব ধরনের খেলাধুলা আগেই বন্ধ ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ সরকার। স্থগিত হয়ে গেছে দেশ-বিদেশের সব সিরিজ টুর্নামেন্টের ও লিগের খেলা। ঘরে বসেই এখন সময় কাটছে ক্রিকেটারদের। কবে নাগাদ আবার স্বাভাবিক পরিস্থিতিতে ফিরবে দেশÑ তা বলা যাচ্ছে না। তাই অনির্দিষ্টকালের জন্য মাঠের বাইরে থাকতে হচ্ছে ক্রিকেটারদের। দীর্ঘ সময় খেলার মধ্যে না থাকার প্রভাব স্বাভাবিকভাবেই খেলোয়াড়দের ওপর পড়বে। তাতে অনেক ক্ষতির সম্মুখীন হতে হবে নিশ্চিত। বর্তমান পরিস্থিতিতে উদ্বিগ্ন ও চিন্তিত বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক রকিবুল হাসান। আমাদের সময়কে তিনি জানান, ঘরে থাকার সময় ক্রিকেটারদের ফিটনেস লেভেল ধরে রাখতে পারেন। একাকী নানা ব্যায়াম, খাদ্যাভ্যাসে পরিবর্তন সব কিছু মিলিয়ে ফিটনেস ধরে রাখতে পারলে পরবর্তী সময় সমস্যা হবে না। রকিবুল হাসানের সঙ্গে একই সুরে কথা বললেন বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু। তিনিও খেলোয়াড়দের ফিটনেস ধরে রাখার প্রতি জোর দিয়েছেন।

পৃথিবীর অন্য দেশের মতো বাংলাদেশও করোনা ভাইরাসের কারণে গৃহবন্দি ক্রিকেটাররা। কবে মাঠে খেলা ফিরবেÑ কেউই বলতে পারবেন না। অন্য ক্রিকেট দেশের মতো অবস্থা আমাদেরও। মিনহাজুল আবেদীন নান্নু আমাদের সময়কে বলেন, এটা শুধু আমাদের ক্রিকেটারদের জন্য না; সারা পৃথিবীর ক্রিকেটারদের জন্যই খেলা বন্ধ হয়ে গেছে। এটা আর বলা লাগে নাÑ পুরো বিশ্বে একই অবস্থা। তার পরও যেহেতু কত দিন সময় লাগে (খেলা শুরু হতে) বলা তো যায় না। তবে খেলোয়াড়দের ফিটনেস ঠিক থাকলে আমরা ঘুরে দাঁড়াতে পারব। ঘরে থেকে ফিটনেস ধরে রাখা যায়। ক্রিকেটারদের প্রতি নান্নুর আহ্বানÑ ঘরে বসে যতটুকু ফিটনেস লেভেলটা ঠিক রাখা যায় সেটি করার। স্বাস্থ্য সচেতন হিসেবে থাকা। মিডিয়ার মাধ্যমে যা প্রচার হচ্ছেÑ নিয়ম নির্দেশনা মেনে সচেতন থাকতে হবে সবাইকে। সরকার পদক্ষেপ নিচ্ছে যে লকডাউনের সেভাবে থাকা। এ ভাইরাস রোধে সবাইকে সচেতন থাকতে হবে। আমাদের দেশ হলো ঘন বসতি। সবারই বাসায় থাকা উচিত। ক্রিকেটারদের উদ্দেশে রকিবুল হাসান বলেন, ঘরে থাকা, একাকী সময়ে জিম করা, সানবাথ করা, কাপড় রোদে ভালো করে শুকিয়ে পরা, খাদ্যাভ্যাস ঠিক রাখা ইত্যাদি। সবাইকে সচেতন ও সতর্ক থাকতে হবে।

advertisement
Evall
advertisement