advertisement
advertisement

নারী যাত্রীর কাশি, বাস নিয়ে সোজা হাসপাতালে চালক!

অনলাইন ডেস্ক
২৭ মার্চ ২০২০ ০৩:৪৬ | আপডেট: ২৭ মার্চ ২০২০ ০৩:৪৬
ছবি : সংগৃহীত
advertisement

বাসের এক নারী যাত্রী কাশি দিচ্ছিলেন। বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাসের কারণে বিষয়টি নিয়ে কোনো রকমের ঝুঁকি নেননি চালক। তাই তিনি বাস নিয়ে সোজা হাসপাতালে চলে যান। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে ভারতের কলকাতার বেলেঘাটায় এ ঘটনা ঘটে।

কিন্তু সেখানে গিয়ে বাস থেকে নামতে না চাওয়ায় ওই যাত্রীকে নিয়ে বেলেঘাটা আইডি হাসপাতাল চত্বরে হুলস্থুল পড়ে যায়। পরে বেলেঘাটা থানার পুলিশ এসে তাকে অ্যাম্বুলেন্সে করে বাঙুর হাসপাতালে নিয়ে যায়।

ওই বাসের চালক কলকাতার আনন্দবাজার পত্রিকাকে জানান, বৃহস্পতিবার আসানসোল থেকে তার কলকাতায় আসার কথা ছিল। সেই মোতাবেক সকাল ৮টার দিকে আসানসোল থেকে রওনা হন তিনি। কিন্তু তার আগে বরাকর থানার পুলিশ এসে এক নারীকে তার বাসে তুলে দিয়ে তাকে অনুরোধ করেন, ওই নারীর বাড়ি কলকাতার বেহালায়। তাকে যেন ধর্মতলায় তিনি নামিয়ে দেন। বাসচালক ওই যাত্রীকে তুলে নিয়ে বিষয়টি এসবিএসটিসির এক কর্তাকে জানিয়েও রাখেন।

কিন্তু বৃহস্পতিবার দুপুরে ধর্মতলায় ওই বাস পৌঁছানোর পর বিপত্তি বাধে। বাসচালক জানিয়েছেন, আসানসোল থেকে ধর্মতলা আসার সময় ওই নারী যাত্রী পুরো পথ কাশতে কাশতে এসেছেন। ওই নারীর ধর্মতলায় নামার কথা থাকলেও সেখানে নামতে না চাওয়ায় বাসচালক আবার সেই এসবিএসটিসির কর্তাকে বিষয়টি জানান। খবর দেওয়া হয় ময়দান থানায়। ওই নারী যাত্রী যেহেতু কাশছিলেন, তাই ময়দান থানা তাকে বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দেয়। এরপর বাসচালক যাত্রীসহ বাস নিয়ে পৌঁছন বেলেঘাটায়। কিন্তু সেখানে গিয়েও তাকে বাস থেকে নামানো যায়নি। পরে বেলেঘাটা থানার পুলিশ এসে ওই নারীকে বাস থেকে নামিয়ে অ্যাম্বুলেন্সে করে এমআর বাঙুর হাসপাতালে নিয়ে যায়। এরপর বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালে যাওয়া ওই বাসে জীবাণুনাশক স্প্রে করা হয়। ওই চালক এবং কন্ডাকটরের প্রাথমিক পরীক্ষা করা হয়।

advertisement