advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

সাক্ষাৎকার
‘একটু ধৈর্য নিয়ে ঘরে থাকুন’

জাহিদ ভূঁইয়া
৩০ মার্চ ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ৩০ মার্চ ২০২০ ০০:৩৫
advertisement

ছোটপর্দার জনপ্রিয় অভিনেত্রী শবনম ফারিয়া। কাজ করেছেন বড়পর্দায়ও। দেশের এই কঠিন পরিস্থিতিতে সবাইকে সচেতন ও নিরাপদ থাকার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি। কথা বলেছেন নাটক ও অন্যান্য বিষয়ে। সাক্ষাৎকার নিয়েছেনÑ জাহিদ ভূঁইয়া

করোনা ভাইরাসের কারণে বেশ কদিন ধরে বাসাতেই আছেন। সময় কাটছে কীভাবে?

এত লম্বা অবসর কখনো পাইনি। এই সময়টা পরিবারের সঙ্গেই কাটাচ্ছি। ফোনে আত্মীয়স্বজন, বন্ধু ও সহকর্মীদের খোঁজ নিচ্ছি। সুযোগ পেলে বই পড়ছি, সিনেমা দেখছি। আর প্রতিনিয়ত পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন থাকার চেষ্টা করছি।

ভক্তদের উদ্দেশে কী বলবেন?

করোনা একটি প্রাকৃতিক ব্যাপার। এটা নিয়ন্ত্রণ করতে উন্নত দেশগুলো হিমশিম খাচ্ছে। আমাদের ছোট দেশ, জনসংখ্যা অনেক বেশি। আমরা যদি সচেতন না হই, তা হলে এ ভাইরাস সামাল দেওয়া বেশ কষ্টকর হবে। আমি আমার ভক্ত ও দেশের সাধারণ মানুষকে বলতে চাই, সবাই নিরাপদে থাকুন। খুব বেশি প্রয়োজন ছাড়া কেউ বাসা থেকে বের হবেন না। এমন দুর্যোগ এর আগেও এসেছে। এটা কিছুদিন থাকবে, আবার চলে যাবে। ততদিন সবাইকে বলব, একটু ধৈর্য ধরে ঘরে বসে থাকুন।

‘ফ্যামিলি ক্রাইসিস’ নাটকটি নিয়ে কেমন সাড়া পাচ্ছেন?

এখন পর্যন্ত আমার অভিনীত সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয় ধারাবাহিক এটি। এই নাটকের মতো এত রেসপন্স আর পাইনি। এতে আমার চরিত্রের নাম রুমা।

অনেকে বলেন, এখন কেউ টেলিভিশন দেখেন না?

হয়তো বা দেখেন না। কেউ কেউ আবার ইউটিউবে অভ্যস্ত। কিন্তু মধ্যবয়স্ক যারা, তারা তো ইউটিউব দেখেন নাÑ টেলিভিশনেই নাটক দেখেন। আমাদের যে নাটকের গল্প, তা মধ্যবয়স্ক দর্শকরাই বেশি দেখেন।

‘দেবী’র নীলু চরিত্রে আপনাকে সবাই বেশ পছন্দ করেছে। এর পরও নতুন কোনো চলচ্চিত্রে দেখা যায়নি কেন?

‘দেবী’র পর যে পরিমাণ রেসপন্স ছিল, সে ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে হবে। কিন্তু এমন কোনো স্ক্রিপ্ট আর পাইনি।

শেষ ৪ প্রশ্ন

আবার জন্মালে...

এই জীবনে যত ভুল করেছি, সেগুলো শুধরে আসব। সেই সঙ্গে ভালো একজন অভিনেত্রী হতে চাইব। তবে বর্তমানে মিডিয়ার যে অবস্থা, এ অবস্থায় অবশ্যই আসতে চাই না।

অভিনেত্রী না হলে...

সাংবাদিক হতাম। এই পেশার প্রতি অন্যরকম একটা ভালো লাগা কাজ করে।

এখন পর্যন্ত যে ইচ্ছাটা অপূর্ণ আছে...

আমার খুব ইচ্ছা রুটিনমাফিক কাজ করা। সেটি ১০ কিংবা ১২ ঘণ্টা হলেও হবে।

যে কারণে নিজেকে সবার চেয়ে আলাদা মনে হয়...

কোনো কারণেই নিজেকে আলাদা মনে হয় না। আমি অন্য আট-দশটা মানুষের মতোই।

advertisement