advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

করোনা ছড়ানোর শঙ্কা
প্রিপেইড বিদ্যুৎ বিল দিতে লম্বা লাইন

নিজস্ব প্রতিবেদক
৩০ মার্চ ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ৩০ মার্চ ২০২০ ০০:৪১
advertisement

করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে বর্তমানে সারা দেশে ‘লকডাউন’ চলছে। ২৬ মার্চ থেকে ৪ এপ্রিল পর্যন্ত সরকারি বেসরকারি সব প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। মানুষের চলাচল সীমিত করা হয়েছে। এর মাঝে পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেড (ডিপিসি) ঘরে বসে প্রিপেইড মিটার রিচার্জের সুযোগ দিয়েছে। কিন্তু সে সুযোগ নিচ্ছেন না গ্রাহকরা। প্রিপেইড বিদ্যুৎ বিলের টাকা রিচার্জের জন্য গা-ঘেঁষে লাইন দিয়ে অপেক্ষা করছেন। এ অবস্থায় করোনার সংক্রমণের আশঙ্কা করা হচ্ছে।

বিদ্যুৎ বিল দেওয়ার জন্য রাজধানীর আজিমপুরে ঢাকা পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানির সামনে দেখা গেল লম্বা লাইন। আজিমপুর বাসস্ট্যান্ড থেকে শুরু করে এ লাইন অনেক দূর চলে যায়। এ সময় তারা পরস্পর থেকে ন্যূনতম দূরত্ব বজায় রাখেনি। কেউ কেউ মাস্ক ও হ্যান্ডগ্লাভস ছাড়াই লাইনে দাঁড়িয়ে আছেন। অর্থাৎ করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে আইইডিসিআর যেসব স্বাস্থ্য সুরক্ষা বিধির নির্দেশনা দেন সেগুলো মানা হচ্ছে না। জনসমাগম এড়িয়ে চলা, একজনের থেকে আরেকজনের মাঝে দূরত্ব বজায় রাখা, হ্যান্ডশেক না করাÑ এসবের

কোনোটাই লাইনে দাঁড়ানো মানুষগুলো মানছেন না। ফলে করোনা ভাইরাসের বিস্তাররোধে সরকারের যে উদ্যোগ তা সঠিকভাবে বাস্তবায়ন হচ্ছে না।

লাইনে দাঁড়ানো ব্যক্তিরা বলছেন, বিদ্যুৎ বিল পরে দেওয়ার ব্যবস্থা করলে হোম কোয়ারেন্টিনের যে উদ্যোগ তা সফল হতো। এ জন্য ডিপিডিসির জরুরি ভিত্তিতে পদক্ষেপ নেওয়া উচিত। তাদের দাবি ছুটির এ কদিন প্রিপেইড বিদ্যুৎ বিল যেন পরে নেওয়ার ব্যবস্থা করা হয় কিংবা করোনা ভাইরাস পরিস্থিতির পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে আনার পরই ডিপিডিসি যেন গ্রাহকদের কাছ থেকে বিল নেয়।

ডিপিডিসির ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রকৌশলী বিকাশ দেওয়ান আমাদের সময়কে বলেন, আমরা বিকল্প ব্যবস্থা হিসেবে ঘরে বসেই রিাচার্জের সুযোগ রেখেছি। বারবার বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রচার করেছি। কিন্তু মানুষ এসবের ধারেকাছেও যাচ্ছে না। উল্টো অনেকে প্রয়োজনের বেশি রিচার্জ করতে এসে লাইন দিচ্ছে। তিনি আজিমপুরের লাইনের বিষয়ে বলেন, আজ ছুটির দিন, সেখানে আমরা একটি বুথ খোলা রেখেছিলাম। এত বেশি মানুষ এসে হাজির হয়েছে। পরে সেটা বন্ধ করে দিয়েছি।

প্রসঙ্গত, করোনা সংক্রামণ রোধে বিদ্যুতের প্রিপেইড মিটরের গ্রাহকরা ঘরে বসে কার্ড রিচার্জ করতে পারবেন ডিপিডিসি এসব ব্যবস্থা রেখেছে। করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে এজেন্টের কাছে না যেতে পারলে এজেন্টরা বাসায় এসে কার্ড রিচার্জ করে দিয়ে যাবেন। ডিপিডিসির তালিকায় থাকা এজেন্টকে ফোন দিয়ে বাসায় বসে রিচার্জ করা যাবে। এজেন্টদের ডিপিডিসি থেকে এ নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। জরুরি প্রয়োজনে প্রি-পেইড মিটার রিচার্জের জন্য ডিপিডিসির ওয়েব ঠিকানা িি.ি ফঢ়ফপ.ড়ৎম.নফ/ধমবহঃষরংঃ ভিজিট করে আপনার কাছের এজেন্টদের তালিকা জেনে নিতে পারবেন।

advertisement