advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

বিশুদ্ধতা বেড়েছে ঢাকার বাতাসে, বৃষ্টি হতে পারে

নিজস্ব প্রতিবেদক
৩০ মার্চ ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ৩০ মার্চ ২০২০ ১১:০৯
advertisement

দেশে গত কয়েক দিনের তাপমাত্রায় চৈত্রের তাপপ্রবাহ অনুভূত হচ্ছে। দীর্ঘ শীত শেষে হুট করেই যেন গরম পড়ে গেছে। এদিকে লকডাউনের ফলে কলকারখানা বন্ধ থাকায় এবং লোকসমাগম কম হওয়ায় ঢাকার বায়ু বিভিন্ন সূচকে অন্য সময়ের চেয়ে বিশুদ্ধ হয়েছে।

এয়ার কোয়ালিটি ইনডেক্সের (একিউআই) তথ্যানুযায়ী, বর্তমানে ঢাকা বিশ্বের ৩৪তম দূষিত বায়ুর নগরী। গত কয়েক সপ্তাহ আগেও এই অবস্থান সর্বনিম্ন দশে থাকত। এমনকি চলতি বছর কয়েক দফা সর্বোচ্চ দূষিত নগরীর কাতারেও দেখা গেছে ঢাকাকে।

বর্তমানে দূষিত বায়ু থেকে ঢাকা সহনশীল বায়ুর স্তরে পৌঁছেছে। গতকাল রাজধানীর গড় দূষণের সূচকে স্কোর ছিল ৮৪ পয়েন্ট, যা পূর্বে ১৭০ থেকে ২২০ পর্যন্ত থাকত। এ ছাড়া গুলশান, বসুন্ধরা ও উত্তরায় যথাক্রমে ৭৫, ৭৮ ও ৬৩ পয়েন্ট রয়েছে।

করোনা ভাইরাসের কারণে ঢাকা ত্যাগ করেছে অধিকাংশ মানুষ। এ ছাড়া কলকারখানা, স্কুল-কলেজ বন্ধ থাকার পাশাপাশি লোকসমাগমও নিয়ন্ত্রণ করা হচ্ছে, যার প্রভাব পড়েছে বায়ুতে।

গতকাল রাজধানীতে গড় তামপাত্রা ছিল ৩৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা আগামীতে ক্রমান্বয়ে বৃদ্ধির সম্ভাবনা রয়েছে। আগামী বুধবারের মধ্যে রাজধানীর তাপমাত্রা বৃদ্ধি পেয়ে ৩৮ ডিগ্রিতে উঠবে। এ ছাড়া আগামী শুক্রবার হালকা বাতাস ও মৃদু বৃষ্টিপাত হতে পারে। তবে বৃষ্টিপাত হলেও তাতে তাপমাত্রার কোনো পরিবর্তন হবে না।

আর্দ্র আবহাওয়ায়ও তাপামাত্রা বেশিই থাকবে। বর্তমানে লঘুচাপের বার্ধিতাংশ পশ্চিমবঙ্গ এবং হিমালয়ের পাদদেশীয় পশ্চিমবঙ্গে রয়েছে। এ ছাড়া মৌসুমের স্বাভাবিক লঘুচাপ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে; ফলে চলতি সপ্তাহে সারাদেশের আবহাওয়া শুষ্ক থাকবে।

গতকাল সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল চাঁদপুরে ৩৭.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস, আর সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল তেতুলিয়ায় ১৭.৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

advertisement