advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

ঢাকা থেকে জ্বর নিয়ে বাড়িতে স্বামী, ঘরে ঢুকতে দিলেন না স্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক,বগুড়া
৩০ মার্চ ২০২০ ১৯:২১ | আপডেট: ৩১ মার্চ ২০২০ ০৭:৩৫
advertisement

ঢাকা থেকে জ্বর নিয়ে বগুড়ার আদমদীঘি উপজেলার কেশরতা গ্রামের নিজ বাড়িতে যান রাজমিস্ত্রী কাবিল উদ্দীন। আজ সোমবার সকালে তিনি বাড়ি যাওয়ার পর ঘরেই ঢুকতে দেননি তার স্ত্রী।  

ওই ব্যক্তির শরীরে করোনাভাইরাস রয়েছে, এমন আশঙ্কায় আজ সকাল থেকে কেশরতা গ্রামে তোলপাড়া শুরু হয়। একই গ্রামের দুবাই ও ঢাকা ফেরত আরও দুই ব্যক্তি গত ২০ মার্চ নিজ বাড়িতে এসে তাদের অবস্থান গোপন করে থাকেন।

জানা যায়, আদমদীঘির কেশরতা গ্রামের কাবিল উদ্দীন ঢাকা থেকে শরীরে জ্বর নিয়ে আজ ভোরে ট্রাকযোগে বাড়িতে আসেন। বাড়ি আসার পর তার শরীরে জ্বর রয়েছে, কথাটি শুনে তার স্ত্রী ঘর থেকে তাকে বের করে দিয়ে ঘরের দরজা বন্ধ করে রাখেন। এ ছাড়া একই গ্রামের দুবাই ফেরত নজরুল ইসলামের ছেলে ইউসুফ আলী ও ঢাকা ফেরত বয়েজ উদ্দীনের ছেলে মেরিন প্রকৌশলী মেহেদী হাসান গত ২০ মার্চ থেকে গ্রামে এসে আত্মগোপন করেন। এ নিয়ে এলাকায় হৈচৈ শুরু হয়।

ওই বিষয়টি স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) চেয়ারম্যান জিল্লুর রহমানকে জানানোর পর আজ সোমবার তিনি উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. শহীদুল্লাহ দেওয়ানের শরনাপন্ন হন। পরে তিনি মেডিকেল টিম নিয়ে কেশরতা গ্রামে যান।

সেখানে ওই তিন পরিবারের সঙ্গে কথা বলে ও শরীর পরীক্ষা করে তাদের তেমন কোনো উপসর্গ নেই বলে জানান স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা। পরে ওই তিন পরিবারের সকলকে ১৪ দিন হোম কোয়ারেন্টিনে রেখে বাড়িগুলোতে লাল পতাকা উড়িয়ে দেওয়া হয়।

হোম কোয়ারেন্টিনে থাকা ওই তিন পরিবারকে ১৪ দিনের খাওয়ানোর দায়িত্ব নিয়েছেন ইউপি চেয়ারম্যান জিল্লুর রহমান।

advertisement
Evall
advertisement