advertisement
advertisement

আক্রান্ত হওয়ার সুযোগ দেওয়া যাবে না

ডা. মো. শহীদুল্লাহ সিকদার
৩১ মার্চ ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ৩১ মার্চ ২০২০ ০৭:৩৩
advertisement

করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) অতীতের যে কোনো সংক্রামক ব্যাধি থেকে অধিক আক্রমণাত্মক। এর দ্রুত ভৌগোলিক বিস্তৃতি, আক্রান্তের সংখ্যা এবং মৃত্যুর হার সেটি বৈজ্ঞানিকভাবে প্রমাণ করে। কোনো অবস্থায়ই কোনো ব্যক্তি, পরিবার, সমাজ, দেশ অথবা বিশ্ব পরিম-লে একে কম গুরুত্ব দেওয়া যাবে না। চিকিৎসাবিজ্ঞানের ইতিহাসে অতীতের যে কোনো রোগ থেকে একে বেশি গুরুত্ব দিতে হবে। কারণ রোগ তৈরির ক্ষেত্রে এর চরিত্র একেবারেই আলাদা। বিশ্ব নেতৃবৃন্দকে জাতি, ধর্ম-বর্ণ, রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক ভেদাভেদ ভুলে গোটা বিশ্বের মানুষকে কোভিড-১৯ থেকে রক্ষার জন্য এগিয়ে আসতে হবে।

মনে রাখতে হবে বিলম্ব হলে আমাদের চরম মূল্য দিতে হবে! কারণ প্রতিরোধই মূল কর্তব্য-রোগ হওয়ার সুযোগ দেওয়া যাবে না।বিশেষ কিছু খাদ্য শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়িয়ে দেয় বলে আমাদের জানা রয়েছে। যেমন ভিটামিন ’সি’সমৃদ্ধ ফল আমড়া, পেয়ারা, কমলা, পেঁপে, আপেল, আঙুর ইত্যাদি। আর সবজিতে গাজর, ব্রকলি, শসা ইত্যাদি ছাড়াও রসুন, আদা, কাঁচামরিচ এ ধরনের খাদ্যসামগ্রী আমাদের শরীরে ভিটামিন ’সি’ ও অন্যান্য ভিটামিন খনিজ পদার্থ এবং এন্টিঅক্সিডেন্ট সরবরাহের মাধ্যমে শরীরে রোগ প্রতিরোধ শক্তি বাড়িয়ে দেয়, যা করোনা ভাইরাস রোধে অতীব প্রয়োজনীয়।

ইতোমধ্যে আমরা শিখেছি- হাঁচি, কাশি, সংস্পর্শ, ব্যবহার্য রুমাল, কাপড়-চোপড়সহ অনেক সামগ্রীর মাধ্যমে এটি ছড়ায়। সুতরাং সবাইকে সচেতনভাবে এর চর্চা করতে হবে। রোগী বা আক্রান্ত ব্যক্তিকে আলাদা রাখতে হবে এবং তার সেবার ক্ষেত্রে সতর্কতার সহিত ব্যক্তিগত সুরক্ষাসামগ্রী ব্যবহার করে রোগ ছড়ানোর সম্ভাব্য পথ বন্ধ করতে হবে।

অধ্যাপক ডা. মো. শহীদুল্লাহ সিকদার

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়

advertisement