advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

করোনা সন্দেহে মৃত ব্যক্তিকে দাফনে বাধা শিবগঞ্জে ইউনিয়ন সভাপতিকে শোকজ করল আ.লীগ

নিজস্ব প্রতিবেদক বগুড়া
৩১ মার্চ ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ৩১ মার্চ ২০২০ ০০:৩৮
advertisement

শিবগঞ্জে শ^াসকষ্টে মৃত ব্যক্তিকে দাফনে (সৎকার) বাধা দেওয়ার কারণে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মেজবাউর রহমানকে কারণ দর্শানোর (শোকজ) নোটিশ দেওয়া হয়েছে। শিবগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক স্বাক্ষরিত ওই নোটিশে আগামী তিন কার্যদিবসের মধ্যে তাকে জবাব দিতে বলা হয়েছে।

শিবগঞ্জ উপজেলার ময়দানহাটা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মেজবাউর রহমান বরাবর প্রেরিত নোটিশে উল্লেখ করা হয়, ময়দানহাটা ইউনিয়নের দাঁড়িদহে (মহব্বত নন্দীপুর গ্রাম) মৃত ব্যক্তির সৎকারে আপনি কেন বাধা প্রদান করেছেন তার সদুত্তর আগামী তিন কার্যদিবসের মধ্যে দাখিল করতে বলা হলো।

শিবগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজার রহমান মোস্তা বলেন, ওই ঘটনায় দলের ভাবমূর্তি চরমভাবে ক্ষুণœ হয়েছে। এ কারণে কারণ দর্শাতে বলা হয়েছে মেজবাউরকে। তার জবাব পাওয়ার পর পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

মেজবাউর রহমানের বক্তব্য জানতে তার মুঠোফোনে দফায় দফায় যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তিনি ফোন ধরেননি।

উল্লেখ্য, গত শুক্রবার গাজীপুর থেকে সর্দি-জ্বর ও শ^াসকষ্ট নিয়ে স্ত্রীর কর্মস্থলসংলগ্ন ভাড়ার বাড়িতে যান কাহালু উপজেলার মুরইল গ্রামের মাসুদ রানা। রাতে তার অবস্থার অবনতি হলেও তার স্ত্রী এনজিওকর্মী সাজেদা বেগম প্রতিবেশী বা প্রশাসনের কোনো সহযোগিতা পাননি। পরে বগুড়া মোহাম্মদ আলী হাসপাতালের আরএমও ডা. শফিক আমিন কাজল বিষয়টি জেনে শিবগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সকে অবহিত করেন। শনিবার সকাল ১০টায় একজন চিকিৎসক সেখানে পৌঁছে মাসুদ রানাকে মৃত ঘোষণা করেন। এর পর তার মরদেহ দাফনের উদ্যোগ নেওয়া হলে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি মেসবাউর রহমান ও তার সহযোগীরা বাধা সৃষ্টি করে। পরে উপজেলা প্রশাসনকে সঙ্গে নিয়ে অতিরিক্ত পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে রাত পৌনে ৮টায় মরদেহ দাফন করেন।

advertisement