advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

ভারত ফেরত বর-কনে কোয়ারেন্টিনে, বিয়ে দিলেন চেয়ারম্যান

৩১ মার্চ ২০২০ ১৩:৪৬
আপডেট: ৩১ মার্চ ২০২০ ১৪:০৫
স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম শ্যামল
advertisement

সাতক্ষীরা সদরের কুশখালি এলাকায় চোরাইপথে আসা ভারতফেরত ছেলে-মেয়েকে বিয়ে দিয়েছেন স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম শ্যামল। কোয়োরেন্টিনে থাকা ছেলে-মেয়েকে বিয়ে দেওয়ায় স্থানীয়দের সমালোচনার মুখে পড়েন তিনি।

জানা গেছে, কুশখালী ইউনিয়নের কুশখালী গ্রামের মারফত উল্লাহ গাজীর ছেলে মাসুম গাজী তার স্ত্রী ফাইজুন্নাহার ও ছেলে ইলিয়াস গাজীকে নিয়ে কয়েক বছর আগে কাজের জন্য অবৈধভাবে ভারতে পাড়ি জমান। গত ২৬ মার্চ কেড়াগাছি সীমান্ত দিয়ে অবৈধভাবে তারা দেশে প্রবেশ করেন ১৭ বছরের কিশোরী রুমাকে সঙ্গে নিয়ে। ভারত থেকে ফিরে আসার খবরে গ্রাম পুলিশ মাসুম গাজীর বাড়িতে লাল পতাকা ঝুলিয়ে ১৪ দিন হোম কোয়ারেন্টিনে থাকার পরামর্শ দেন।

কিন্তু কোয়ারেন্টিনে থাকা ইলিয়াস গাজী ও ভারতের বাসিন্দা রুমার বিয়ে দেন কুশখালি চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম শ্যামল। ইলিয়াস গাজীর দাদা মারফত উল্লাহ গাজী বলেন, ‘আমার ছেলে ও ছেলের বউ ভারতে ছিলেন। ভারতে কাজ না থাকায় তাদের বাড়িতে ফিরে আসার জন্য বলা হয়। চোরাই পথে তারা ভারত থেকে ফিরে আসেন। ভারতে রুমা ও ইলিয়াস বিয়ে করেছিল। দেশে ফিরে আসার পর সামাজিকতা বজায় রাখতে গত রোববার রাতে পুনরায় আবার তাদের বিয়ে দেওয়া হয়েছে। চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম শ্যামল এতে সহযোগিতা করেছেন। ওরা এখন বাড়ি থেকে বের হচ্ছে না। ’

তিনি আরও বলেন, ভারতে মুরাদাবাদ এলাকায় থাকতো তারা। বিয়ের বিষয়টি মেয়ের পরিবার জানে। বিয়ের দিন ডিএসবির একজন সদস্য এসেছিলেন। তিনি কিছু বলেননি।

কোয়ারেন্টিনে থাকা ছেলে-মেয়েকে বিয়ে দেওয়ার বিষয়ে কুশখালী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম শ্যামলের সঙ্গে একাধিকবার যোগাযোগ করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

এ বিষয়ে সাতক্ষীরা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসাদুজ্জামান বলেন, ‘ ঘটনাটি আমার জানা নেই। বিস্তারিত খোঁজ খবর নিয়ে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ’

advertisement
Evall
advertisement