advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

মুসলিমদেরকে করোনা ছড়ানোর দোষ দেওয়ায় ভারতের ওপর ক্ষুব্ধ যুক্তরাষ্ট্র

অনলাইন ডেস্ক
৪ এপ্রিল ২০২০ ১১:০৭ | আপডেট: ৪ এপ্রিল ২০২০ ১৯:০৮
যুক্তরাষ্ট্রের ধর্মীয় স্বাধীনতা বিষয়ক অ্যাম্বাসেডর অ্যাট লার্জ স্যাম ব্রাউনব্যাক। ফাইল ছবি
advertisement

ভারতের রাজধানী দিল্লিতে তাবলিগ জামাতের একটি সমাবেশে যোগ দেওয়া কিছু মুসলিমের শরীরে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ধরা পড়ে। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে দেশটিতে মুসলিমদের ওপর যেভাবে দোষ চাপাচ্ছে ভারত সরকার তাতে ক্ষুব্ধ হয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের ধর্মীয় স্বাধীনতাবিষয়ক অ্যাম্বাসেডর অ্যাট লার্জ স্যাম ব্রাউনব্যাক।

তিনি ‘দোষারোপের খেলা বন্ধ করে’ করোনাভাইরাস ঠেকাতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে নয়াদিল্লির প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। গত বৃহস্পতিবার অ্যাট লার্জ স্যাম ব্রাউনব্যাক এমন মন্তব্য করেন বলে খবর প্রকাশ করেছে ভারতের সংবাদমাধ্যম টাইমস অফ ইন্ডিয়া।

ব্রাউনব্যাক বলেন, ‘ভারতে কয়েকদিনে করোনার সংক্রমণ বৃদ্ধি পাওয়ার জন্য কোনো একটি নির্দিষ্ট সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের মানুষকে সরকারের দায়ী করা উচিত নয়। আমরা জানি, এই ভাইরাসের প্রকৃত উৎসস্থল ঠিক কোথায়? আমরা জানি এই ভাইরাস মহামারি। গোটা পৃথিবী এখন করোনাভাইরাসে স্তব্ধ। সেখানে কেবল একটি সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের ওপর দোষ চাপিয়ে যে খেলা চলছে তা বন্ধ হওয়া প্রয়োজন। সরকারের প্রয়োজন এই নোংরা খেলার বিরুদ্ধে একটা কড়া পদক্ষেপ নেওয়া।’

লকডাউন ঘোষণার আগে নিজামুদ্দিন মসজিদে ১৩ থেকে ১৫ মার্চ অনুষ্ঠিত তাবলিগের ওই অনুষ্ঠানে অংশ নেওয়া অন্তত ১৩৪ জনের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত করা হয়েছে। বিশ্বের বেশ কয়েকটি দেশের অনেক নাগরিক ও ভারতের বিভিন্ন প্রান্তের কয়েক হাজার মানুষ পাঁচটি ট্রেনে ভ্রমণ করে ওই তাবলিগে অংশ নেন।

স্যাম ব্রাউনব্যাক ভারত সরকার ও তাদের অনুসারী সংবাদমাধ্যমের এমন অবস্থানে ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, কোনো রকম দোষারোপের খেলায় না গিয়ে ভারতের উচিত পরিস্থিতি উত্তরণে সঠিক উপায় বের করা।

তিনি সব ধর্মাবলম্বীদের উদ্দেশে বলেন, সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে নিজেদের মতো করে ধর্মীয় আচার পালন করুন এবং শান্তি বজায় রাখুন।

advertisement
Evall
advertisement