advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

করোনা রোগী চিহ্নিত করবে অ্যাপ ‘করোনা আইডেন্টিফায়ার’

নিজস্ব প্রতিবেদক
৬ এপ্রিল ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ৬ এপ্রিল ২০২০ ০০:৫১
advertisement

মুহূর্তেই করোনা রোগী চিহ্নিত করবে টেলিযোগাযোগ বিভাগের অ্যাপ ‘করোনা আইডেন্টিফায়ার’। আশপাশে কেউ এ ভাইরাসে আক্রান্ত কিনা, সে বিষয়ে তাৎক্ষণিক তথ্য দিতে মোবাইল অ্যাপ্লিকেশনটি তৈরি করেছে ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগ। অ্যাপটি পরিচালনার দায়িত্ব পেয়েছে টেলিটক এবং কারিগরি সহায়তা দিচ্ছে রেডিসন ডিজিটাল টেকনোলজিস লিমিটেড।

‘করোনা আইডেন্টিফায়ার’ অ্যাপটি আপাতত পরীক্ষামূলক স্তরে রয়েছে। শিগগির অ্যাপটি গুগল প্লে স্টোর এবং আইওএস স্টোরে পাওয়া যাবে। তবে ইতোমধ্যে অ্যাপটি এপিকের

মাধ্যমে (যঃঃঢ়://পড়ৎড়হধরফবহঃরভরবৎ.ঃবষবঃধষশ.পড়স.নফ/) অনেকেই ব্যবহার করা শুরু করেছেন। সম্পূর্ণ অ্যাপটি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সংশ্লিষ্ট দপ্তর আইইডিসিআরের সঙ্গে এবং স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে সংযুক্ত থাকবে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, এ অ্যাপটিতে কিছু ফিচার সংযুক্ত করা হয়েছে। মূলত অ্যাপটির মাধ্যমে ব্যবহারকারীর লোকেশন ব্যবহার করে কমিউনিটিতে করোনা ভাইরাস কতটা সংক্রমিত হয়েছে তার একটা অবস্থা জানা যাবে। আশপাশে কোনো কোভিড-১৯ সংক্রামক রোগী বা কোয়ারান্টিনে থাকা ব্যক্তি রয়েছে কিনা, সে বিষয়ে ব্যবহারকারীকে সতর্ক করবে। নিকটস্থ কোনো ব্যক্তি বা কোনো ব্যক্তির সঙ্গে সম্প্রতি যোগাযোগ হয়েছে, এমন ব্যক্তির শরীরে কোভিড-১৯ ভাইরাসের উপস্থিতি মিললে তা ব্যবহারকারীকে সতর্ক করবে।

‘করোনা আইডেন্টিফায়ার’ অ্যাপটির মাধ্যমে ব্যবহারকারী বুকের এক্সরে ইমেজ অনলাইনে ওয়েব এবং মোবাইলে আপলোড করে মিনিটের মধ্যে করোনা টেস্টের রেজাল্ট পাবে। ব্যবহারকারী আক্রান্ত হয়ে থাকলে মুহূর্তের মধ্যে প্রয়োজনীয় চিকিৎসার সিদ্ধান্ত নিতে পারবেন।

ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেন, অ্যাপটির আরও বেশি গ্রহণযোগ্যতা নিশ্চিত করতে প্রতিনিয়ত আমাদের রিসার্চ অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট টিম কাজ করছে। অ্যাপটির পরবর্তী সংস্করণে স্বাস্থ্য ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পরামর্শ নিয়ে আরও কিছু নতুন ফিচার যুক্ত করা হবে।

স্বাস্থ্যঝুঁকি মোকাবিলায় হাসপাতালে যাওয়ার ঝামেলা অনেকটাই নিরসন হলো বলে মনে করছেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের সচিব মো. নূর-উর-রহমান ও টেলিটকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. সাহাবুদ্দিন।

রেডিসন ডিজিটাল টেকনোলজিস লিমিটেডের চেয়ারম্যান দেলোয়ার হোসেন ফারুক বলেন, মূলত ব্লুটুথ ও লোকেশন ট্র্যাকিংয়ের মাধ্যমে কোনো করোনা আক্রান্ত ব্যক্তির ছয় ফুট দূরত্বের মধ্যে এই ইউজার রয়েছেন কিনা, তা জানা যাবে এ অ্যাপটির মাধ্যমে।

advertisement