advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

ভয় ধরাচ্ছে ধারাভি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
৬ এপ্রিল ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ৬ এপ্রিল ২০২০ ০০:৫২
advertisement

এশিয়ার ‘বৃহত্তম বস্তি’খ্যাত মুম্বাইয়ের ধারাভি নিয়ে আশঙ্কা বাড়ছে ভারতের। এ বস্তিতে নতুন করে আরও দুজনের কোভিড-১৯ রোগ ধরা পড়ায় ভয় আরও বাড়ছে। এ নিয়ে ১০ লাখেরও বেশি বাসিন্দা অধ্যুষিত বস্তিটিতে পাঁচজনের দেহে করোনা ভাইরাস ধরা পড়ল। এনডিটিভি।

মুম্বাই বিমানবন্দরের কাছে এ ধারাভি বস্তিতে প্রতি বর্গ কিলোমিটারে প্রায় দুই লাখ ৮০ হাজার মানুষ বাস করেন। সিএনএন বলছে, জনসংখ্যার ঘনত্ব বিবেচনায় এ সংখ্যা যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কের ৩০ গুণ।

অল্প জায়গায় ব্যাপকসংখ্যক মানুষ বসবাস করায় ধারাভিতে করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব ঠেকিয়ে রাখা নিয়ে উদ্বেগ বাড়ছে।

নতুন আক্রান্ত দুজনের মধ্যে ৩০ বছর বয়সী এক নারী আছেন বলে ব্রিহানমুম্বাই মিউনিসিপাল করপোরেশনের সহকারী কমিশনার কিরণ দিঘাভকার জানিয়েছেন। আক্রান্ত নারী যে ভবনে থাকতেন সেই ভবনের ৩৫ বছর বয়সী এক চিকিৎসক এবং বুধবার মারা যাওয়া আরও এক রোগীর কোভিড-১৯ ধরা পড়েছিল।

এনডিটিভি বলছে, পাঁচ বর্গকিলোমিটার জায়গাজুড়ে অবস্থিত এ ধারাভি বস্তিজুড়ে অসংখ্য নর্দমা ও ঝুপড়িঘর আছে। বস্তিটিতে চামড়া প্রক্রিয়াজাত কারখানা, পোলট্রি এবং টেক্সটাইল কারখানাও আছে। গায়ে গা ঘেঁষে থাকা অসংখ্য ভবন অধ্যুষিত এ এলাকায় ‘সামাজিক দূরত্বের’ নির্দেশনা কার্যকর কঠিন হবে বলে কর্মকর্তারা আগে থেকেই আশঙ্কা করছিলেন।

মুম্বাইয়ের দক্ষিণের এ বস্তিটির বাসিন্দাদের করোনা ভাইরাস শনাক্তে চার হাজার স্বাস্থ্যকর্মী পাঠানো হচ্ছে বলে ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে।

advertisement