advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

কোয়ারেন্টিন কাপলদের গল্প

আমাদের সময় ডেস্ক
৭ এপ্রিল ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ৭ এপ্রিল ২০২০ ০০:৩১
advertisement

করোনা সংকটে মানবসেবায় নিবেদিত মেডিক্যালকর্মীদের সম্মান জানাতে আর দশজনের সাথে জানালায় দাঁড়িয়ে শ্রদ্ধা জানাচ্ছিলেন যুক্তরাষ্ট্রের ওরিগনে ফিলিপ কার্কল্যান্ড। একই বাসার নিচতলার এক তরুণীও একইভাবে শ্রদ্ধা জানাচ্ছিলেন। মেয়েটিকে দেখে মুগ্ধ ফিলিপ তাকে ওয়াইন পান করার প্রস্তাব দেন। রাজি হলেও

কোয়ারেন্টিনে থেকে একসাথে পান করার তো সুযোগ নেই। তাই ওপরতলা থেকেই ওয়াইন ঢেলে দেন ফিলিপ। আর নিচতলায় গ্লাস পেতে কায়দা করে তা সংগ্রহ করেন নিকোল হাডসন নামে ওই তরুণী।

সম্প্রতি এমন অভূতপূর্ব দৃশ্য প্রতিবেশীদের কেউ ভিডিও করে শেয়ার করেন টুইটারে। আর মুহূর্তেই তা ভাইরাল হয়ে যায়। বাস্তবে এ জুটির সম্পর্ক প্রণয়ে রূপ নিয়েছে কিনা তা জানা না গেলেও ইতোমধ্যে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ‘নিউ কোয়ারেন্টিন কাপল’ বলে খেতাব পেয়েছেন তারা।

এদিকে ব্রুকলিনে কোয়ারেন্টিনে থাকা অবস্থায় একদিন বারান্দায় বসে থাকতে গিয়ে জেরেমি কোহেনের চোখ পড়ে পাশের বাসার ছাদে। এক তরুণী নাচছিল সেখানে। তার নাচে মুগ্ধ হয়ে হাত নাড়েন জেরেমি। সঙ্গে সঙ্গে সাড়াও দেয় মেয়েটি। তাদের মধ্যে দূরত্ব এত বেশি ছিল যে কেউ কারও মুখ ঠিকমতো দেখতে পাচ্ছিলেন না।

এর মধ্যেই দারুণ এক আইডিয়া আসে পেশায় ফটোগ্রাফার জেরেমির মাথায়। একটা কাগজে নিজের ফোন নম্বর লিখে ড্রোনের সঙ্গে আটকে সেটা ওই তরুণীর ছাদে পাঠিয়ে দেন। ড্রোনে থাকা ক্যামেরায় মেয়েটিকে দেখেই প্রেমে পড়ে যান জেরেমি। পরে মেয়েটি ফোনও করে জেরেমিকে। মেয়েটির নাম টরি সিগনারেলা।

কিছুক্ষণ পরেই সোজা ডিনার ডেটের প্রস্তাব দিয়ে বসেন জেরেমি। তাতে সম্মতিও দেন টরি। কিন্তু কোয়ারেন্টিনের কারণে জেরেমি তার বারান্দায় আর টরি তার বাসার ছাদে বসে ভিডিওকলেই সারেন নিজেদের প্রথম ডেটিং। এ ঘটনার ভিডিও টুইটারে শেয়ার করতেই ভাইরাল হয়ে যায় সেটি। নেটিজেনরা ভালোবেসে তাদেরও নাম দেয় ‘কোয়ারেন্টিন কাপল’।

advertisement