advertisement
advertisement

এসআইকে গলা কেটে হত্যাচেষ্টা ‘প্রেমিকে’র

মাদারীপুর প্রতিনিধি
৭ এপ্রিল ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ৭ এপ্রিল ২০২০ ০০:৩১
advertisement

মাদারীপুর সদর মডেল থানার প্রশিক্ষণকালীন এসআই অনিমা বাড়ৈকে গলা কেটে হত্যার চেষ্টা করেন তার কথিত প্রেমিক। গত রবিবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে শহরের লেকেরপাড় পৌর শিশু পার্কের পাশে প্রত্যাশা হাসপাতালের সমানে এ ঘটনা ঘটে। গুরুতর আহত অনিমাকে রাতেই বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে তাৎক্ষণিক অস্ত্রোপচার করানো হয়। তিনি এখনো শঙ্কামুক্ত নন। অনিমা বাড়ৈর বাড়ি গোপালগঞ্জের ভাঙ্গারহাটে। আর ঘাতক রণবীরের বাড়ি বগুড়ায়। সে ঢাকা থাকে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

এ বিষয়ে মাদারীপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মোহাম্মদ বদরুল আলম মোল্লা বলেন, ‘তিন মাস আগে অনিমা বাড়ৈ মাদারীপুর সদর মডেল থানায় পিএসআই হিসেবে যোগ দেন। রবিবার থানায় ডিউটি শেষে করে রাত ১১টার দিকে তিনি পুলিশ লাইনে যাচ্ছিলেন। পথিমধ্যে পৌর শিশু পার্কের পাশে প্রত্যাশা হাসপাতালের

সমানে কথিত প্রেমিক রণবীর তাকে হত্যার জন্য গলায় ছুরি চালিয়ে পালিয়ে যায়। এ সময় স্থানীয় লোকজন আহত অনিমাকে উদ্ধার করে মাদারীপুর সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখান থেকে আমরা তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাতেই দ্রুত শেবামেক হাসপাতালে পাঠাই। সেখানে রাতেই তার গলায় অপারেশন হয়। তবে এখনো তিনি পুরোপুরি শঙ্কামুক্ত নন।’

তিরি আরও বলেন, ‘ঘটনাস্থল থেকে একটি ছুরি ও এক জোড়া স্যান্ডেল উদ্ধার করা হয়েছে। সেই সঙ্গে ঘাতক রণবীরকে ধরতে রাত থেকেই আমরা কয়েটি টিম মাঠে নামিয়েছি। আমাদের অভিযান অব্যাহত রয়েছে। এ বিষয়ে থানায় মামলা প্রক্রিয়াধীন।’

advertisement