advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

করোনা ভেবে কাছে যায়নি কেউ, পুলিশ নিল হাসপাতালে

চট্টগ্রামে সড়কে ২ জনের মৃত্যু

চট্টগ্রাম ব্যুরো
৭ এপ্রিল ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ৭ এপ্রিল ২০২০ ০০:৩১
advertisement

চট্টগ্রাম নগরীর পৃথক দুটি স্থানে পোশাক কারখানার এক কর্মকর্তা ও এক রিকশাচালকের মৃত্যু হয়েছে। পুলিশ জানিয়েছে, তারা হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। করোনায় আক্রান্ত ভেবে তাদের কাছে যায়নি কেউ। পুলিশ এসে হাসপাতালে নিয়ে যায় তাদের। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এই দুজনের মৃত্যুর ছবি ভাইরাল হওয়ায় নানা আলোচনা চলছে।

গতকাল সোমবার সকালে নগরীর খুলশী থানার টাইগারপাস ও চকবাজার থানার অলি খাঁ মসজিদের সামনে এ ঘটনা ঘটে। টাইগারপাস এলাকায় মারা যাওয়া সেলিম উদ্দিন বায়েজিদ বোস্তামি থানা এলাকার জিরাত শার্ট লিমিটেড সহকারী ব্যবস্থাপক। তিনি সাতকানিয়া উপজেলার মাদার্শা এলাকার মির্জাখীল গ্রামের রহমত আলীর সন্তান। খুলশী থানার এসআই দেলোয়ার হোসেন

জানান, সকাল ৮টার দিকে তিনি বাসা থেকে বেরিয়ে টাইগারপাস মোড়ে অফিসের গাড়ির জন্য অপেক্ষা করছিলেন। সেখানে তার আরও কয়েকজন সহকর্মী ছিলেন। এ সময় হঠাৎ ঢলে পড়েন সেলিম। করোনা আক্রান্ত সন্দেহে প্রথমে তার কাছে যাননি কেউ। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। ততক্ষণে তার আত্মীয়স্বজনও অ্যাম্বুলেন্স নিয়ে সেখানে আসেন। একটি বেসরকারি হাসপাতালে নেওয়ার পর সেখানকার ডাক্তাররা জানান, হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন সেলিম।

চকবাজার থানার পরিদর্শক (তদন্ত) রিয়াজ উদ্দিন চৌধুরী জানান, সকালে চকবাজার অলিখাঁ মসজিদের সামনে প্রফুল্ল দাশ (৫০) নামে এক রিকশাচালক সড়কে ঢলে পড়েন। স্থানীয়রা করোনা আক্রান্ত ভেবে তার কাছেও যাননি। থানায় খবর দিলে পুলিশ গিয়ে তাকে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে বলে জানান।

প্রফুল্লর বাড়ি রাউজান উপজেলায়। নগরীর ষোলশহর রেলস্টেশনের পাশে ভাড়া বাসায় থাকেন। রাতে ষোলশহর এলাকায় নৈশপ্রহরীর চাকরি করেন। সকালে রিকশা নিয়ে বের হয়েছিলেন। প্রফুল্ল দাশের লাশ তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

advertisement