advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

আতঙ্কের নগর সিলেট চেপে বসেছে নিরবতা

নুরুল হক শিপু সিলেট
৭ এপ্রিল ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ৭ এপ্রিল ২০২০ ০৭:৩৩
গতকাল রাতে সিলেট নগরীরর নয়াসড়ক পয়েন্টের ছবি- আমাদের সময়
advertisement

প্রাণবন্ত সিলেট শহর এখন প্রাণহীন। দিন আর রাত সবই এখন সমান। নীরবতা যেন চেপে বসেছে। এই তো রবিবারও ছিল প্রায় গুরুত্বপূর্ণ মোড় আর চায়ের দোকানে মানুষে আড্ডা। ওই দিন সন্ধ্যার পর থেকেই শহরে নীরবতার সাথী হয়েছে আতঙ্কও। সবার চেনা শহরকে একটি দুঃসংবাদ করে দিয়েছে অচেনা। দুঃসংবাদ শোনার আগে কত সতর্কবার্তাই প্রশাসনের পক্ষ থেকে জারি করা হয়; কিন্তু কাজে আসেনি।

রবিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় সিলেটের সিভিল সার্জন ডা. প্রেমানন্দ ম-ল যখন সংবাদমাধ্যমকে সিলেটে একজনের করোনা পজিটিভের ব্যারটি নিশ্চিত করেন, এর কিছুক্ষণ পরই নগরবাসীকে আতঙ্ক আঁকড়ে ধরে। শুরু হয় একের পর এক আলোচনা। করোনা আক্রান্ত ব্যক্তি পেশায় একজন চিকিৎসক হওয়ায় ঘটনার মোড় নেয় অন্যভাবে।

একাধিক সূত্র জানায়, ওই চিকিৎসক সরকারি হাসপাতালের পাশাপাশি নগরীর একটি বেসরকারি হাসপাতালেও চিকিৎসাসেবা দিতেন। তিনি ওই হাসপাতালে কম হলেও প্রতিদিন ৪০ জনের মতো রোগী দেখতেন বলেও আলোচনা চলছে। এমন পরিস্থিতি সিলেট অনেক মানুষেরই করোনা আক্রান্ত থাকার আশঙ্কা করা হচ্ছে। এ নিয়ে নগরজুড়ে আতঙ্কও ছড়িয়ে পড়েছে।

সিলেটের সিভিল সার্জন ডা. প্রেমানন্দ ম-ল আমাদের সময়কে বলেন, ‘অপ্রীতিকর পরিস্থিতির আশঙ্কায় আমরা পুরো পরিবারকে হোম কোয়ারেন্টিনে এবং পুরো এলাকাকে লকডাউন করে দিয়েছি।’

সিলেট মহানগর পুলিশের উপকমিশনার (গণমাধ্যম) জেদান আল মুসা বলেন, শুরু থেকেই পুলিশ জনসচেতনতায় কাজ করছে। বিশেষ করে জনসমাগম এড়িয়ে চলার জন্য সবার প্রতি আহ্বান জানানো অব্যাহত আছে বলে জানান তিনি।

আজ থেকে সিলেটে করোনা পরীক্ষা : সিলেট ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থাপিত পিসিআর ল্যাব পুরোপুরি প্রস্তুত হয়েছে। আজ মঙ্গলবার থেকে করোনা ভাইরাস শনাক্তের সব পরীক্ষা শুরু হবে।

প্রাথমিক অবস্থায় প্রতিদিন প্রায় ৯৬টি নমুনা পরীক্ষা করা যাবে। আর এ পরীক্ষার ফল ৪-৬ ঘণ্টার মধ্য পাওয়া যাবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তর সিলেটের বিভাগীয় কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক ডা. আনিসুর রহমান।

তিনি বলেন, সোমবার সিলেটে যাদের নমুনা সংগ্রহ করা হবে, আজ মঙ্গলবার সেগুলো ওসমানী হাসপাতালের ল্যাবে পরীক্ষা করা হবে। এখন থেকে সিলেটের কারও নমুনা ঢাকায় পাঠানোর প্রয়োজন হবে না। তিনি বলেন, সোমবার কিছু নমুনা নিয়ে ওসমানী মেডিক্যাল কলেজের ল্যাবে পরীক্ষামূলকভাবে টেস্ট করে দেখা হবে। এর পর মঙ্গলবার (আজ) থেকে পুরোদমে পরীক্ষা শুরু হবে।

এর আগে গত ৩০ মার্চ সকালে করোনা পরীক্ষার জন্য স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সিদ্ধান্তে বিশেষায়িত ল্যাব স্থাপনের জন্য মেশিন ও কিট সিলেটের ওসমানী হাসপাতালে আসে। প্রথম দিকে পাঁচশ কিট দেওয়া হয়েছে। পর্যায়ক্রমে আরও কিট আসবে বলে জানানো হয়েছে।

advertisement