advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

নিউজিল্যান্ডের সেরা সাউদি ও ডিভাইন

ক্রীড়া প্রতিবেদক
৯ এপ্রিল ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ৮ এপ্রিল ২০২০ ২১:৪০
advertisement

করোনা ভাইরাসের মধ্যেই মৌসুমের সেরা ক্রিকেটার বেছে নিয়েছে নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট প্লেয়ার্স অ্যাসোসিয়েশন (সিপিএ)। বুধবার ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে পুরস্কার বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করা হয়েছে। ২০১৩ সালের পর আবারও ‘প্লেয়ার্স ক্যাপ’ অ্যাওয়ার্ড জিতেছেন নিউজিল্যান্ডের পেসার টিম সাউদি। নারী দলের অধিনায়ক সোফি ডিভাইন টানা তৃতীয়বারের মতো ‘সিপিএ প্লেয়ার্স’ অ্যাওয়ার্ড জিতেছেন।

ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে টিম সাউদির নাম ঘোষণা করেন ডেনিয়েল ভেট্টরি। তিনি বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের স্পিন বোলিং কোচ হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। সুনীল যোশীর জায়গায় তাকে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। নিউজিল্যান্ডের সাবেক এ অধিনায়কের সঙ্গে ১০০ দিনের চুক্তি করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠেয় ২০২০ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ পর্যন্ত দলের সঙ্গে থাকবেন তিনি। টাইগারদের কোচিংয়ের জন্য দিন হিসেবে টাকা নিচ্ছেন ভেট্টরি। কর কর্তনের পর প্রতিদিন তিনি পান ২ লাখ টাকার বেশি। গত বছরের জুলাই মাসের শেষে তাকে বাংলাদেশের স্পিন বোলিং কোচ হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে বিসিবি। সাকিব, তাইজুলদের কোচিং করাতে তিনি ঢাকায় আসেন অক্টোবরে। তার প্রথম অ্যাসাইনমেন্ট ছিল বাংলাদেশ দলের ভারত সফর। করোনা ভাইরাসের কারণে খেলাধুলা বন্ধ। ছুটিতে থাকা ভেট্টরি এখন পরিবারের সঙ্গে নিউজিল্যান্ডে রয়েছেন।

নিউজিল্যান্ডের পেশাদার ক্রিকেটারদের সংগঠনের (সিপিএ) পক্ষ থেকে ভোটের মাধ্যমে বর্ষসেরা ক্রিকেটার বেছে নেওয়া হয়। পুরুষ ক্রিকেট দলের ‘প্লেয়ার্স ক্যাপ’ পুরস্কার জিতেছেন টেস্টে নেইল ওয়াগনার, ওডিআইতে লুকে ফার্গুসন এবং টি-টোয়েন্টিতে টিম সাউদি। নারী দলের সিপিএ প্লেয়ার্স অ্যাওয়ার্ড জিতেছেন ওডিআইতে সুজি বেটেস এবং টি-টোয়েন্টিতে সোফি ডিভাইন। ভিডিও কনফারেন্সে টিম সাউদির নাম ঘোষণা করার পর ভেট্টরি বলেন, ‘প্লেয়ার্স ক্যাপ জেতাটা কিন্তু সহজ নয়। ধারাবাহিকভাবে ফর্ম, ফিটনেস, অধ্যবসায় এবং ফরম্যাট যেটাই হোক না কেন দলে নিয়মিত অবদান রাখাটাই মুখ্য। বছরটা সত্যিই অসাধারণ কাটিয়েছে টিম (সাউদি)। সে সত্যিকার অর্থে এ অ্যাওয়ার্ড পাওয়ার যোগ্য।’ প্রসঙ্গত, ২০১৯-২০ মৌসুমে ১০ টি-টোয়েন্টিতে ৭ উইকেট নেন সাউদি। এ ছাড়া ৬ টেস্টে ৩৩ এবং ৩ ওয়ানডেতে ৪ উইকেট শিকার করেছেন এ কিউই পেসার। কেন উইলিয়ামসন এবং রস টেলরের পর তৃতীয় ক্রিকেটার হিসেবে দুবার প্লেয়ার্স ক্যাপ জেতার কৃতিত্ব দেখালেন সাউদি।

সোফি ডিভাইনের নাম ঘোষণা করেন সাবেক নারী ক্রিকেটার রেবেকা রোলস। তিনি গড়েছেন রেকর্ড। নিউজিল্যান্ডের দ্বিতীয় ক্রিকেটার হিসেবে টানা তৃতীয়বারের মতো এ পুরস্কার জিতেছেন তিনি। তার আগে ২০১৫, ২০১৬ ও ২০১৭ সালে এ পুরস্কার টানা জিতেছিলেন কেন উইলিয়ামসন। ব্যাট হাতে দুর্দান্ত ফর্মে থাকার পুরস্কারই পয়েছেন ডিভাইন। ২০১৯-২০ মৌসুমে আট টি-টোয়েন্টিতে এক সেঞ্চুরি ও চার ফিফটিতে ৪২৯ রান করেছেন। এ ছাড়া বল হাতে ৭ উইকেট নিয়েছেন এ অলরাউন্ডার। ব্যাটে-বলে ভালো পারফরম্যান্স করায় এ পুরস্কার পেয়েছেন তিনি।

২০১৯-২০ মৌসুমে যে সিরিজগুলোর জন্য সবচেয়ে বেশি ভোট পেয়েছেন ছেলে দলের ক্রিকেটাররা তা হলোÑ ক্রিকেট বিশ্বকাপে লুকে ফার্গুসন, শ্রীলংকা সফরে বিজে ওয়াটলিং, ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজে নেইল ওয়াগনার, অস্ট্রেলিয়া সফরে নেইল ওয়াগনার এবং ভারতের বিপক্ষে সিরিজে টিম সাউদি। নারী দলের সোফি ডিভাইন বেশি ভোট পেয়েছেন সাউথ আফ্রিকার বিপক্ষে সিরিজের জন্য। আর হেইলে জেনসেন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের জন্য ভোট পেয়েছেন। তবে বর্ষসেরা ক্রিকেটার নির্বাচিত হয়েছেন সুজি আর সোফি।

advertisement