advertisement
advertisement

২১২৫ কোটি টাকা বাজেট সহায়তা দাবি

নিজস্ব প্রতিবেদক
৯ এপ্রিল ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ৮ এপ্রিল ২০২০ ২২:৫৫
advertisement

করোনার বিপর্যয়ে অর্থনীতি চাঙ্গা রাখতে চলতি অর্থবছরে জরুরি ভিত্তিতে বিশ্বব্যাংকের কাছে ২৫ কোটি ডলার চেয়েছে অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগ (ইআরডি)। টাকার অঙ্কে এর পরিমাণ ২ হাজার ১২৫ কোটি টাকা। গত বছরের প্রতিশ্রুত ৭৫ কোটি ডলারের বাজেট সহায়তার দ্বিতীয় কিস্তির এই অর্থ চাওয়া হয়েছে।

এ ছাড়া আগামী অর্থবছরের বাজেটের

জন্য নতুন করে ৫০ কোটি ডলার বাজেট সহায়তা চেয়ে বিশ্বব্যাংকের কাছে চিঠি পাঠিয়েছে ইআরডি। ইআরডির দায়িত্বশীল সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে। বিশ্বব্যাংকসহ উন্নয়ন সহযোগীরা সাধারণত প্রকল্পভিত্তিক সহজ শর্তে ঋণ দিয়ে থাকে। আর বাজেট সহায়তার অর্থ সরকার নিজেদের ইচ্ছেমতো খরচ করতে পারে।

এ বিষয়ে বেসরকারি গবেষণা প্রতিষ্ঠান সাউথ এশিয়ান নেটওয়ার্ক অন ইকোনমিক মডেলিংয়ের (সানেম) নির্বাহী পরিচালক সেলিম রায়হান বলেন, এ মুহূর্তে সরকারের খরচ মেটাতে বাজেট সহায়তা চাওয়া যৌক্তিক। কেননা করোনা পরিস্থিতির কারণে সরকারের আয় কমে যাবে। ব্যাংক খাত থেকে আর খুব বেশি ঋণ নিতে পারবে না। শুধু বিশ্বব্যাংক নয়; এডিবি, আইএমএফসহ অন্য দাতা সংস্থার কাছেও সহায়তা চাওয়া উচিত। করোনা সংকটের কারণ দেখিয়ে সুদের হার কমানোর দর কষাকষিতেও যেতে পারে বাংলাদেশ।

বিশ্বব্যাংক গত ৪ এপ্রিল করোনা প্রতিরোধে বাংলাদেশকে ১০ কোটি ডলার (৮৫০ কোটি টাকা) দেওয়ার কথা জানায়। শিগগির ইআরডির সঙ্গে বিশ্বব্যাংকের এ সংক্রান্ত চুক্তি হবে বলে জানা গেছে।

advertisement