advertisement
advertisement

বাংলাদেশে ভেন্টিলেটর ১৭৬৯

সেভ দ্য চিলড্রেনের উদ্বেগ

আমাদের সময় ডেস্ক
৯ এপ্রিল ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ৮ এপ্রিল ২০২০ ২২:৫৫
advertisement

বাংলাদেশের সাড়ে ১৬ কোটি মানুষের বিপরীতে দুই হাজারেরও কম ভেন্টিলেটর নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে জাতিসংঘের অঙ্গ সংগঠন সেভ দ্য চিলড্রেন। নিজস্ব ওয়েবসাইটে প্রকাশিত এক বিবৃতিতে এ বিষয়ে সতর্কও করেছে সংগঠনটি। বাংলাদেশে এ মুহূর্তে আছে ১ হাজার ৭৬৯টি ভেন্টিলেটর অথবা তা পাইপলাইনে রয়েছে। এর অর্থ হলো প্রতি ৯৩ হাজার ২৭৩ জন মানুষের জন্য গড়ে একটি ভেন্টিলেটর।

সেভ দ্য চিলড্রেন বলেছে, প্রায় ১০ লাখ রোহিঙ্গা শরণার্থীসহ কক্সবাজারে বসবাস করেন কমপক্ষে ৩৩ লাখ মানুষ। কিন্তু সেখানে কোনো ভেন্টিলেটরই নেই। তাই করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব ও দেশে মানবিক বিপর্যয় এড়াতে বাংলাদেশে ভেন্টিলেটর সরবরাহের জন্য আন্তর্জাতিক সহায়তার জরুরি আহ্বান জানিয়েছে সংগঠনটি।

এতে

আরও বলা হয়েছে, আইসিইউ বেড এবং ভেন্টিলেটরগুলো রয়েছে রাজধানী ঢাকাসহ বড় বড় শহরে প্রাণকেন্দ্রে। এর ফলে প্রত্যন্ত অঞ্চলে বসবাসকারীদের জন্য এর নাগাল পাওয়া কঠিন হয়ে উঠেছে।

সংগঠনটির বাংলাদেশ শাখার ডেপুটি কান্ট্রি ডিরেক্টর শামীম জাহান বলেন, কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগীদের ভেন্টিলেটর সুবিধা নিশ্চিত করার জন্য আমরা সরকারি ও বেসরকারি খাতের সঙ্গে সংযুক্ত হতে বাংলাদেশ সরকারের প্রতি আহ্বান জানাই।

সেভ দ্য চিলড্রেনের রোহিঙ্গা রেসপন্স অ্যাডভোকেসি ম্যানেজার অ্যাথেনা রেবার্ন বলেন, কক্সবাজারে আইসিইউ সুবিধা না থাকার কারণে রোগীকে সংকটজনক অবস্থায় ১৫০ কিলোমিটার দূরে পাশর্^বর্তী চট্টগ্রাম জেলায় স্থানান্তর করতে হবে। এতে তাদের ও অন্যদের জন্য ঝুঁকি বাড়বে। বাংলাদেশে মানবিক বিপর্যয় এড়াতে জরুরি ভিত্তিতে প্রয়োজন ভেন্টিলেটর এবং তা চালানোর মতো প্রশিক্ষিত ব্যক্তি। ভাইরাসে সংক্রমিত হওয়ার মারাত্মক ঝুঁঁকিতে রয়েছে শিশুরা। যদি পরিবারের সদস্যরা এ ভাইরাসে সংক্রমিত হন অথবা মারা যান, তা হলে শিশুরাও হয়তো এতিম হবে।

advertisement