advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

বাংলাদেশ-ভারতকে নিয়ে সিরিজ আয়োজনে প্রস্তুত শ্রীলঙ্কা

স্পোর্টস ডেস্ক
১৮ মে ২০২০ ১৯:৪১ | আপডেট: ১৮ মে ২০২০ ২০:২৮
ভারতের পর বাংলাদেশেকে নিয়ে সিরিজ আয়োজনে প্রস্তুত শ্রীলঙ্কা। পুরোনো ছবি
advertisement

বাংলাদেশ ও ভারতকে নিজেদের মাটিতে আতিথ্য দিতে চায় শ্রীলঙ্কা। জুন মাসের শেষ দিকে ভারত ও জুলাইয়ে বাংলাদেশের বিপক্ষে সিরিজ দুটি পূর্ব নির্ধারিত সময়েই আয়োজন করতে চায় দেশটির ক্রিকেটে বোর্ড (এসএলসি)। করোনাভাইরাসের প্রকোপ কমায় তারা এই সিদ্ধান্ত নিতে যাচ্ছে।

সিরিজ দুটি আয়োজনে তারা প্রস্তুত বলে জানিয়েছেন দেশটির ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান অ্যাশলি ডি সিলভা। তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ এবং ভারত দুই দেশের সঙ্গেই সমানতালে আমাদের আলোচনা চলছে। আমরা তাদের সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় আছি। তবে এখন পর্যন্ত যা দেখা যাচ্ছে, এ সিরিজ দুটো স্থগিত হবে না।’

এদিকে এই সিরিজগুলোর ভাগ্য শুধুমাত্র ক্রিকেট বোর্ডগুলোর চাওয়াতেই হচ্ছে না। শ্রীলঙ্কা, ভারত ও বাংলাদেশ সরকারেরও পৃথক পৃথকভাবে ভূমিকা রাখতে হবে এখানে। সবার আগে শ্রীলঙ্কায় ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা তুলে নিতে হবে দেশটির সরকারকে। এরপর ভারত ও বাংলাদেশ সরকারও আন্তর্জাতিক ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা তুলে নিতে হবে। এরপর শ্রীলঙ্কাকে পর্যাপ্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা সুনিশ্চিত করতে হবে।

এই ব্যাপারে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দিন চৌধুরী বলেন, ‘ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞার পরিস্থিতির দিকে লক্ষ্য রাখতে হবে আমাদের, দুই দেশের কোয়ারেন্টিন বিধিও দেখতে হবে। ওদের সঙ্গে আমাদের আলোচনা চলছে এবং তাতে সব প্রসঙ্গই উঠে আসছে। ক্রিকেটারের প্রস্তুতির ব্যাপারটিও ভাবতে হবে আমাদের। ক্রিকেটাররা অনুশীলনে ফিরতে পারলে সফরের অন্যান্য দিকগুলো ঠিক করতে পারি আমরা।’

জুনে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে তিনটি ওয়ানডে ও সমান সংখ্যক টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলার কথা রয়েছে ভারতের। জুলাইয়ে শ্রীলঙ্কার মাটিতে তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলার কথা বাংলাদেশের। এই ম্যাচগুলো আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের অংশ।

শ্রীলঙ্কায় এখন কোভিড-১৯ সংক্রমিত রোগীর সংখ্যা পাঁচশ'র কম। ধীরে ধীরে লকডাউন শিথিল করে দিচ্ছে সেখানকার সরকার। বাংলাদেশে অবশ্য এর পুরো বিপরীত চিত্র দেখা যাচ্ছে। প্রতিদিনই এক থেকে দেড় হাজারের মতো নতুন করে সংক্রমিত হচ্ছে।

advertisement
Evall
advertisement