advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

স্বামী নিখোঁজ, টুইট স্ত্রীর! হাসপাতাল জানাল ‘করোনায় মৃত-শেষকৃত্যও সম্পন্ন’

অনলাইন ডেস্ক
২২ মে ২০২০ ১২:০৫ | আপডেট: ২২ মে ২০২০ ১২:০৯
ছবি : সংগৃহীত
advertisement

করোনাভাইরাস সংক্রমিত কোভিড-১৯ রোগে মৃত এক ব্যক্তির শেষকৃত্য সম্পন্ন করেছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ও পুলিশ। অথচ একই হাসপাতালে ভর্তি তার স্ত্রী কিছুই জানেন না। সম্প্রতি ভারতের তেলেঙ্গানার গান্ধী সরকারি হাসপাতালে এ ঘটনা ঘটে।

মৃতের স্ত্রীর অভিযোগ, পুলিশ বা হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তাকে না জানিয়েই তার স্বামীর লাশ দাফন করেছে। ওই নারীর অভিযোগ অস্বীকার করেছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম ইন্ডিয়া টাইমসের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত ৩০ এপ্রিল ৪২ বছর বয়সী মধুসূদন করোনায় আক্রান্ত হয়ে গান্ধী হাসপাতালে ভর্তি হন। এরপর তার স্ত্রীও করোনায় আক্রান্ত হয়ে সেখানে ভর্তি ছিলেন। কিন্তু হঠাৎ সেই নারী স্বামীর কোনো খোঁজ পাচ্ছিলেন না। শেষে তেলেঙ্গানার মুখ্যমন্ত্রীর পুত্রকে উল্লেখ করে তিনি টুইট করেন। মুখ্যমন্ত্রী পুত্র কেটি রামারাও নিজেও ক্যাবিনেট মন্ত্রী।

ওই নারীর টুইট পাওয়ার পরই তেলেঙ্গানার করোনা হাসপাতাল গান্ধী গর্ভমেন্টের সুপার জানান, ‘আপনার স্বামীর মৃত্যু হয়েছে। পরিবারের কেউ দেহ নিতে না চাওয়ায় শেষকৃত্যও সম্পন্ন করা হয়েছে কর্তৃপক্ষের পক্ষ থেকেই।’ তবে বিষয়টি সামনে আসতেই শোরগোল পড়ে গেছে তেলেঙ্গানায়।

হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, গত ১ মে মধুসূদনের মৃত্যু হয়। নিয়ম অনুযায়ী দেহ তুলে দেওয়া হয় পুলিশের হাতে। পুলিশের কাজ ছিল তা পরিবারের হাতে তুলে দেওয়া।

পুলিশের দাবি, পরিবারকে জানানো হলেও দেহ নিতে অস্বীকার করে পরিবার। তাই হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের অনুমতিতে সেই দেহ সৎকার করা হয়।

যদিও মৃতের স্ত্রীর অভিযোগ, পুলিশ বা হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের পক্ষ থেকে এমন কিছুই জানানো হয়নি। ওই নারীর অভিযোগ অবশ্য অস্বীকার করে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ দাবি করে, এত রোগীর চিকিৎসা হচ্ছে যে হাসপাতালে, সেখানে এমন অভিযোগ ভিত্তিহীন।

advertisement
Evall
advertisement