advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

করোনাকালে ঈদ
টিভিতে নেই সেই আমেজ

জাহিদ ভূঁইয়া
২৩ মে ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ২২ মে ২০২০ ২৩:৪২
advertisement

এমন ঈদ আগে দেখেনি বাংলাদেশ। তেমনি এমন পরিস্থিতি কখনই দেখেনি টিভি চ্যানেলগুলো। ঈদ হলো টিভি নাটকের যৌবনকাল। কিন্তু করোনার কারণে এবার সেই জৌলুস নেই টিভি আয়োজনে। এর পরও পুরনো আর নতুন মিলিয়ে বেশ কিছু চ্যানেল তাদের ঈদের পসরা সাজানোর চেষ্টা করেছেন। নাটকে ঘুরেফিরে মোশাররফ করিম, নুসরাত ইমরোজ তিশা, চঞ্চল চৌধুরী, জাকিয়া বারী মম, আফরান নিশো, মেহজাবিন, অপূর্ব, তানজিন তিশাদের পর্দায় দেখা যাবে। এবারের ঈদে স্যাটেলাইট টিভি চ্যানেল বাংলাভিশন আয়োজন করেছে ৮ দিনব্যাপী অনুষ্ঠানমালার। এর মধ্যে রয়েছে ৩৫টি একক ও ৩টি ধারাবাহিক নাটক। এ ছাড়াও বেশ কিছু জনপ্রিয় চলচ্চিত্র প্রচার করা হবে চ্যানেলটিতে। বাংলাভিশনের অনুষ্ঠানপ্রধান তারেক আখন্দ বলেন, ‘আমাদের ঈদ আয়োজনে কোনো পুরনো নাটক থাকবে না। গত ৩-৪ মাসে ঈদের জন্য নির্মিত নাটকগুলোই প্রচার হবে।’ অন্যান্যবারের মতো এবার আগের আমেজ নেই জানিয়ে তিনি বলেন, ‘বর্তমান পরিস্থিতি প্রসঙ্গে সবাই অবগত। এর পরও আমাদের চেষ্টার কমতি ছিল না। শুধু অনুষ্ঠান ছাড়া আমাদের সব আয়োজনই রয়েছে।’

নাটক-টেলিছবি-চলচ্চিত্রসহ বেশকিছু অনুষ্ঠান নিয়ে ৮ দিনব্যাপী অনুষ্ঠান সাজিয়েছে চ্যানেল আইও। এর মধ্যে রয়েছে শীর্ষ নির্মাতাদের নির্মাণ ও শীর্ষ শিল্পীদের অভিনয়ে নতুন ১৬ নাটক এবং আফজাল হোসেন ও অপি করিম অভিনীত ৮ পর্বের ধারাবাহিক ‘রেখা’। থাকছে বাংলা সাহিত্যের কিংবদন্তি কথাসাহিত্যিক হুমায়ূন আহমেদের ৭ চলচ্চিত্র, ৪ টেলিছবিসহ মোট ১০ টেলিছবি। আরও থাকছে গানের অনুষ্ঠান, তারকাদের আড্ডা, গেম শো ও শাইখ সিরাজের ‘কৃষকের ঈদ আনন্দ’। দেশের শীর্ষ জনপ্রিয় দুই নির্মাতা মোস্তফা সরয়ার ফারুকী ও সালাহউদ্দিন লাভলু স্পেশাল আড্ডা থাকছে দর্শকের জন্য। নতুন ও পুরনো মিলিয়ে এনটিভি আয়োজন করেছে ৮ দিনের অনুষ্ঠানমালা। এতে রয়েছে একক নাটক, ধারাবাহিক, টেলিছবি, নৃত্যানুষ্ঠান, গানের আয়োজন, চলচ্চিত্র, আড্ডা অনুষ্ঠান। একই আয়োজন নিয়ে ঈদের অনুষ্ঠানমালা সাজিয়েছে স্যাটেলাইট টিভি চ্যানেল আরটিভি।

নাটক, চলচ্চিত্র ও বিভিন্ন আয়োজন নিয়ে বৈশাখী টিভি আয়োজন করেছে ৭ দিনের অনুষ্ঠানমালার। ঈদের ৭ দিনের অনুষ্ঠানমালায় বেসরকারি টিভি চ্যানেল নাগরিক এবার ২৯টি বাংলা ছবি প্রদর্শনের উদ্যোগ নিয়েছে। এবারের আয়োজনে বড় চমক থাকছে ‘মীরা বাঈ’খ্যাত জেমসের বিখ্যাত গানের ছবি ‘নারীর মন’। এটি এবারই প্রথম টিভিতে প্রচার করা হবে বলে জানিয়েছেন নাগরিক টিভির অনুষ্ঠানপ্রধান কামরুজ্জামান বাবু। অন্য ছবিগুলো হলোÑ ‘কেয়ামত থেকে কেয়ামত’, ‘স্বপ্নের ঠিকানা’, ‘তুমি আমার’, ‘মায়ের অধিকার’, ‘চাওয়া থেকে পাওয়া’, ‘তোমাকে চাই’, ‘হিরো দ্য সুপারস্টার’, ‘মাই নেম ইজ খান’, ‘পূর্ণদৈর্ঘ্য প্রেমকাহিনি-২’, ‘হিটম্যান’, ‘খোদার পরে মা’, ‘আমাদের ছোট সাহেব’, ‘মা আমার স্বর্গ’, ‘মনে প্রাণে আছো তুমি’, ‘চাচ্চু’, ‘বিয়ের ফুল’, ‘আম্মাজান’, ‘স্বামী-স্ত্রীর যুদ্ধ’, ‘দুই বধূ এক স্বামী’, ‘পিতা-মাতার আমানত’, ‘মনের সাথে যুদ্ধ’, ‘লাল বাদশা’, ‘জেল থেকে বলছি’, ‘ভয়ংকর বিষু’, ‘প্রাণের মানুষ’, ‘ইতিহাস’, ‘অন্ধকার’ ও ‘ভন্ড’। ছবিগুলোর প্রচার শুরু হবে চাঁদরাত থেকে। ঈদের দিন থেকে সকাল ৮টা, বেলা ১১টা, বিকাল ৩টা ও সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় এগুলো প্রচার হবে। কামরুজ্জামান বাবু বলেন, ‘করোনা প্রাদুর্ভাবের কারণে দেশের সব সিনেমা হল বন্ধ রয়েছে। এ কারণে আমরা দর্শকদের জন্য এবার এতগুলো জনপ্রিয় ছবি প্রচারের উদ্যোগ নিয়েছি। আশা করছি, দর্শকরা তাদের প্রিয় ছবিগুলো ঘরে বসে নাগরিকের পর্দায় উপভোগ করবেন।’ এ ছাড়া চ্যানেলটিতে ৭টি হলিউড ছবিও দেখানো হবে।

প্রতিবছর ঈদের আগ মুহূর্তের সময়টায় বিশ্রাম নেওয়ার সময় পাওয়াটা কষ্টকর হয়ে যায় শোবিজ কর্মীদের। তারকাদের শুটিং ব্যস্ততা, নতুন অনুষ্ঠান নির্মাণ, চ্যানেলগুলোর ঈদ প্রস্তুতিÑ এমন চিত্র থাকে প্রতিবার। তবে করোনা এবার সব অভিজ্ঞতা পাল্টে দিল। বিটিভি, একুশে টিভি, মাছরাঙা টিভি, দেশ টিভি, দীপ্ত টিভি, চ্যানেল নাইন, এসএ টিভি, এশিয়ান টিভি নতুন আর পুরনো আয়োজন দিয়ে এবারের ঈদ অনুষ্ঠানমালা সাজিয়েছে।

advertisement
Evall
advertisement