advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

‘এত ভালো খেতে পারব ভাবিনি, এখন তো একমুঠো খেয়ে বেঁচে থাকাই দায়’

নরসিংদী প্রতিনিধি
২৫ মে ২০২০ ১৭:৫৯ | আপডেট: ২৫ মে ২০২০ ১৯:৫৬
খাদ্য বিতরণ করছেন পৌর মেয়র কামরুজ্জামান কামরুল। ছবি : আমাদের সময়
advertisement

আব্দুল করিম নামে এক ব্যক্তি ঈদের দিন সকালে দাঁড়িয়ে ছিলেন রাস্তায়। হঠাৎ একটি পিকআপ ভ্যান সামনে এসে দাঁড়ালো। সেখান থেকে একটি ছেলে খাবারের প্যাকেট দিলো। খাবারের প্যাকেটটি হাতে নিয়েই আনন্দিত হন তিনি। কেননা সেখানে ছিল রকমারি সব খাবার।

নিজের অনুভূতি প্রকাশ করে তিনি বলেন, ‘আজ সকালে এত ভালো খেতে পারব ভাবিনি। এখন তো একমুঠো খেয়ে বেঁচে থাকাটাই দায়। পোলাও, মুরগি, ডিম, ফিন্নি (ফিরনি) পেট ভরে খাবো! আল্লাহ যেন আমাদের সবাইকে এ সংকট থেকে তাড়াতাড়ি মুক্তি দান করে।’

সারা দেশে চলছে মহামারি করোনাভাইরাস সংকট। আর সে সংকটের মধ্যেই উদযাপিত হল পবিত্র ঈদুল ফিতর।

নরসিংদীতে আজ সোমবার ঈদের দিন সকাল থেকে নিম্ন আয়, অসহায়, দুস্থ, কর্মহীন শ্রমিকসহ নানা শ্রেণি-পেশার ২৫ হাজার মানুষকে এক বেলা উন্নতমানের খাবার সরবরাহ করলেন নরসিংদীর পৌর মেয়র ও শহর আওয়ামী লীগের সভাপতি কামরুজ্জামান কামরুল। খাবারের মধ্যে রয়েছে—মোরগ, পোলাও, ডিম, মিষ্টি ও ফিরনি।

ঈদের দিন সকাল থেকেই প্যাকেট করা খাবারগুলো নরসিংদী শহরের বিভিন্ন এলাকায় ট্রাকের মাধ্যমে বিতরণ করেন ছাত্রলীগসহ আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা।

নরসিংদী পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও পৌর মেয়র কামরুজ্জামান কামরুল দৈনিক আমাদের সময়কে বলেন, ‘চলমান সংকটের কারণে অনেক পরিবারই অনেকদিন যাবত উন্নতমানের খাবার খেতে পারছে না। সে চিন্তা ভাবনা থেকে ঈদের দিন আমি সকলকে একবেলা পোলাও-মাংসসহ ভালো খাবার খাওয়ালাম।’

‘ঈদের আগের দিন রাত থেকেই রান্না শুরু করি। সকাল পর্যন্ত রান্না চলতে থাকে। ২৫ হাজার মানুষকে ইতিমধ্যে খাবার বিতরণ করা হয়েছে’, আরও জানান তিনি।

advertisement