advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

লকডাউন শিথিল করায় সংক্রমণ আবারও বাড়তে পারে, হুঁশিয়ারি ডব্লিউএইচও’র

অনলাইন ডেস্ক
২৬ মে ২০২০ ১৩:০৭ | আপডেট: ২৬ মে ২০২০ ১৫:৩৩
ডা. মাইকেল রায়ান। পুরোনো ছবি
advertisement

মহামারি করোনাভাইরাসের প্রকোপ কমে যাওয়ায় যেসব দেশে লকডাউন শিথিল বা কড়াকড়ি তুলে নেওয়া হচ্ছে, সেখানে আবারও সংক্রমণ বেড়ে যেতে পারে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। গতকাল সোমবার সংস্থাটির হেলথ ইমারজেন্সিজ প্রোগ্রামের নির্বাহী পরিচালক ডা. মাইকেল রায়ান এক ভার্চুয়াল ব্রিফিংয়ে এ আশঙ্কার কথা জানান।

তিনি বলেন, ‘বিশ্ব এখনো করোনা মহামারির প্রথম ঢেউয়ের মধ্যে রয়েছে। অনেক দেশেই সংক্রমণ কমলেও মধ্য ও দক্ষিণ আমেরিকা, দক্ষিণ এশিয়া এবং আফ্রিকায় এর প্রকোপ বাড়ছে।’

রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, করোনাভাইরাস সংক্রমণের হার কমে যাওয়ায় সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্র, চীন, ইতালি, জার্মানি, স্পেনসহ অনেক দেশই লকডাউনের কড়াকড়ি শিথিল করেছে এবং ব্যবসায়িক কার্যক্রম ফের চালু করেছে। এতে সংক্রমণ আবারও বেড়ে যেতে পারে হুঁশিয়ারি দিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

এ প্রসঙ্গে ডা. রায়ান বলেন, ‘মহামারি অনেক সময় ঢেউয়ের মতো আসে। অর্থাৎ যেখানে প্রথম ঢেউ প্রশমিত হয়েছে সেখানে আবারও সংক্রমণ ফিরে আসতে পারে। এ ছাড়া প্রথম ঢেউয়ের মধ্যে কড়াকড়ি দ্রুত তুলে নিলে সংক্রমণের হার আরও বেশি গতিতে বাড়ারও সম্ভাবনা রয়েছে।’

‘আমরা যখন দ্বিতীয় ঢেউয়ের কথা বলি, স্বাভাবিকভাবেই সেখানে রোগের প্রথম ঢেউ থাকবে এবং কয়েকমাস পর এর পুনরাবৃত্তি ঘটবে। অনেক দেশেই কয়েক মাসের মধ্যে এটি বাস্তবতায় পরিণত হতে পারে’ যোগ করেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার এই কর্মকর্তা।

তিনি আরও বলেন, ‘আমাদের জেনে রাখা দরকার, যেকোনো সময় এই রোগের সংক্রমণ লাফিয়ে বাড়তে পারে। আমরা ধরে নিতে পারি না যে, সংক্রমণ কমছে মানে এটি কমতেই থাকবে। কয়েক মাসের মধ্যেই এর দ্বিতীয় ঢেউয়ের জন্য আমাদের প্রস্তুত হতে হবে।’

এ ক্ষেত্রে সবাইকে এখনো সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখাসহ বাড়তি সতর্কতা মেনে চলারও পরামর্শ দেন সংস্থাটির হেলথ ইমারজেন্সিজ প্রোগ্রামের নির্বাহী পরিচালক ডা. মাইকেল রায়ান।

advertisement