advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

বাচ্চাদের মুখে মাস্ক দিয়ে দুধ খাওয়ানো যাবে : নাসিমা সুলতানা

নিজস্ব প্রতিবেদক
২৭ মে ২০২০ ১৫:১২ | আপডেট: ২৭ মে ২০২০ ১৬:৪১
স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক নাসিমা সুলতানা। পুরোনো ছবি
advertisement

শিশুকে মাতৃদুগ্ধ দান করার মাধ্যমে করোনাভাইরাস ছড়ায় না বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক নাসিমা সুলতানা। তিনি জানান, মায়েরা যেমন মুখে মাস্ক লাগিয়ে দুগ্ধদান করতে পারবেন, তেমনি বাচ্চাদের মুখেও মাস্ক দিয়ে দুধ খাওয়ানো যাবে।

আজ বুধবার দুপুর আড়াইটায় মহাখালী থেকে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নিয়মিত অনলাইন স্বাস্থ্য বুলেটিনে এসব কথা বলেন অধ্যাপক নাসিমা সুলতানা।

সবাইকে সচেতন থাকার, সতর্ক থাকার এবং সুস্থ থাকার আহ্বান জানিয়ে নাসিমা সুলতানা বলেন,  ‘আপনারা জনসমাগম এড়িয়ে চলুন। সর্বদা সঠিকভাবে মাস্ক পরে থাকবেন মুখে। আপনার সুরক্ষা আপনার হাতে।’

সন্তানকে মাতৃদুগ্ধ পান করানোর মাধ্যমে করোনা ছড়ায় না জানিয়ে তিনি বলেন, ‘এখানে আরেকটি বিষয় উল্লেখ করতে চাই, যে মায়েরা সন্তানকে দুগ্ধদান করে থাকেন- বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা জানিয়েছে যে দুধ খাওয়ানোর মাধ্যমে কোনো ভাইরাস ট্রান্সমিট হয় না বা ভাইরাসের সংক্রমণ হয় না। কাজেই আপনারা যথাযথ ব্যবস্থা নিয়ে মায়েরা মুখে মাস্ক পরে এবং সম্ভব হলে বাচ্চাদের মুখে মাস্ক দিয়ে আপনারা যারা দুগ্ধ দিয়ে থাকেন সন্তানদের তারা দুগ্ধ দিতে পারেন।’

‘তবে দুগ্ধ দেওয়ার আগে আপনার স্তনটি ভালোভাবে ধুয়ে পরিষ্কার করে নেবেন, হাত ভালোভাবে পরিষ্কার করে নেবেন সাবান পানি দিয়ে। ২০ সেকেন্ড ধরে হাত ধুয়ে নেবেন। এরপর স্তন পরিষ্কার করে নেওয়ার পরেই আপনি বাচ্চাকে দুগ্ধদান করতে পারেন’ আরও যোগ করেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক।

এর আগে দেশে করোনাভাইরাস সংক্রমণের সর্বশেষ পরিস্থিতি জানিয়ে তিনি জানান, দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় ৮ হাজার ১৫টি নমুনা পরীক্ষায় করোনাভাইরাস আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছে ১ হাজার ৫৪১ জন। একদিনে নতুন করে আরও ২২ জনের মৃত্যু হয়েছে।

গত ৮ মার্চ দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার পর এখন পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ৫৪৪ জনের। নতুন আরও ৩৪৬ জনসহ মোট সুস্থ হয়েছেন ৭ হাজার ৯২৫ জন। আর এখন পর্যন্ত মোট আক্রান্ত দাঁড়িয়েছে ৩৮ হাজার ২৯২ জন।

advertisement