advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

আ.লীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা, আরেক নেতার রগ কর্তন

নড়াইল প্রতিনিধি
২৭ মে ২০২০ ১৫:৪০ | আপডেট: ২৭ মে ২০২০ ১৯:৪৪
নিহত কাইয়ূম সিকদার। ছবি : সংগৃহীত
advertisement

আধিপত্য বিস্তার ও পূর্বশত্রুতার জের ধরে নড়াইলের নড়াগাতি থানার কলাবাড়িয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) ৩ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য কাইয়ূম সিকদারকে (৪৮) কুপিয়ে হত্যা করেছে প্রতিপক্ষের লোকেরা।

গতকাল মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে নড়াগাতি থানার কালিনগর এলাকায় কাইয়ূমকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। এ সময় তার সঙ্গে থাকা নড়াগতি থানা কৃষক লীগের সভাপতি হাসনাত মোল্যার (৪০) হাত ও পায়ের রগ কর্তন এবং একই গ্রামের আপন দুই ভাই মতিয়ার মল্লিক (৪২) ও সজীব মল্লিককে (২৮) কুপিয়ে গুরুতর আহত করেছে প্রতিপক্ষরা।

নিহত কাইয়ূম সিকদার নড়াগাতি থানার বিলাফর গ্রামের হাসু সিকদারের ছেলে।  তিনি সাবেক জাতীয় কাবাডি খেলোয়াড় ও রেফারি।

পুলিশ ও পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, দুটি মোটরসাইকেল যোগে নড়াইলের কালিয়া উপজেলা সদর থেকে বাড়িতে ফেরার পথে কালিনগর এলাকায় ওঁৎ পেতে থাকা প্রতিপক্ষরা পথরোধ করে কাইয়ূম সিকদারসহ চারজনকে কুপিয়ে গুরুতর জখম করে। এর মধ্যে কাইয়ূম সিকদারকে কালিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওযার পথে তার মৃত্যু হয়। এ ছাড়া গুরুতর আহত অবস্থায় কৃষক লীগের নেতা আবুল হাসনাত মোল্যা, মতিয়ার ও সজীব মল্লিককে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।

নড়াইলের সহকারী পুলিশ সুপার (কালিয়া অঞ্চল) রিপন চন্দ্র সরকার হত্যাকাণ্ডের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ‘এলাকায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে এই হতাহতের ঘটনা ঘটেছে বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে। পরিস্থিতি পুলিশের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। ঘটনায় জড়িতদের চিহ্নিত করে আটকের জন্য অভিযান অব্যাহত রয়েছে।’

ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন।

advertisement