advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

ছাড় যেন বিষাদে রূপ না নেয়

নিজস্ব প্রতিবেদক
২৯ মে ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ২৯ মে ২০২০ ০০:১১
advertisement

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, সরকার গণপরিবহন চালুর বিষয়ে ইতিবাচক সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এখন পরিবহন মালিক ও শ্রমিক সংগঠনগুলোকে বিআরটিএর সাথে আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে একটি পরিকল্পনা নিতে হবে। গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে তার সরকারি বাসভবনে নিয়মিত ব্রিফিংয়ে এসব

কথা বলেন।

কাদের বলেন, ‘৩১ মে থেকে সরকার গণপরিবহন চালুর সিদ্ধান্ত নিয়েছে। গণপরিবহন পরিচালনায় যাত্রী, পরিবহন ও চালক - শ্রমিকদের সুরক্ষায় সুনির্দিষ্টভাবে নিতে হবে এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে। তবে এ ছাড় যেন বিষাদে রূপ না নেয়, মালিক, শ্রমিক, যাত্রী সাধারণ সবার দায়িত্বশীলতার পরিচয় দিতে হবে।’

আগামীকাল পরিবহন মালিক ও শ্রমিক সংগঠনগুলোকে নিয়ে বিআরটিএর সাথে মিটিং করে এসব বিষয়ে চূড়ান্ত করতে মন্ত্রণালয় থেকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে বলেও জানান সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী। কাদের বলেন, জীবন ও জীবিকার মাঝে ভারসাম্য তৈরি, অর্থনৈতিক চাকা সচল এবং সামাজিক শৃঙ্খলা ও সুরক্ষার স্বার্থে সরকার সাধারণ ছুটি না বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, জনস্বার্থে দেওয়া সরকারের এ ছাড় অবাধে অপপ্রয়োগ করলে হিতে বিপরীত হওয়ার আশঙ্কা থাকবে। তাই সবার উচিত ধর্ম-বর্ণ-বয়স-পেশাভেদে অদৃশ্য শত্রু করোনার মোকাবিলার করতে হবে।

করোনা আমাদের কারও বন্ধু নয়, কাজেই এ সংকটকে পুঁজি করে রাজনৈতিক ফায়দা নেওয়ার কৌশল হবে আত্মঘাতী।

advertisement