advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

এসএসসিতে ফেল করায় ৩ শিক্ষার্থীর আত্মহত্যা

আমাদের সময় প্রতিনিধি
৩১ মে ২০২০ ২১:০৩ | আপডেট: ৩১ মে ২০২০ ২২:৩৪
প্রতীকী ছবি
advertisement

এসএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফল আজ রোববার ঘোষণা করা হয়েছে। পরীক্ষায় অকৃতকার্য হওয়ায় সারা দেশে তিন শিক্ষার্থীর আত্মহত্যার খবর পাওয়া গেছে। দৈনিক আমাদের সময়ের প্রতিনিধিদের পাঠানো খবরে বিস্তারিত—

হাতীবান্ধা (লালমনিরহাট)

লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় এসএসসি পরীক্ষায় ফেল করায় লাইজু আক্তার (১৬) নামে এক ছাত্রী বিষপান করে আত্মহত্যা করেছে। আজ দুপুরে উপজেলার পাটিকাপাড়া ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ডে এ ঘটনা ঘটে। লাইজু আক্তার ওই এলাকার জেল হকের মেয়ে ও পারুলিয়া তফসিলী উচ্চ বিদ্যালয় অ্যান্ড কলেজের মানবিক বিভাগের ছাত্রী।

স্থানীয়রা জানান, আজ সকালে এসএসসি পরীক্ষার ফল প্রকাশ হয়। ওই ফলাফলে সে ফেল করায় বিষপান করে আত্মহত্যার চেষ্টা করে। এ সময় তার পরিবারের লোকজন তাকে উদ্ধার করে হাতীবান্ধা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

হাতীবান্ধা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ওমর ফারুক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

লাখাই (হবিগঞ্জ)

হবিগঞ্জের লাখাইয়ে এসএসসি পরীক্ষায় ফেল করায় মণি আক্তার (১৮) নামে এক কিশোরী আত্মহত্যা করেছে। আজ দুপুর দেড়টার দিকে এ ঘটনাটি ঘটে।

নিহত মণি আক্তার লাখাই উপজেলার বেগুনাই গ্রামের জামাল মিয়ার মেয়ে। সে মাদনা এসইএসডি মডেল উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এ বছর এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নেয়।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, আজ সকালে এসএসসি পরীক্ষার ফল প্রকাশিত হয়। ফলাফল দেখার পর সে ফেল করায় রাগে ও অপমানে পরিবারের সবার অগোচরে বিষপান করে। পরে পরিবারের লোকজন তাকে উদ্ধার করে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

লাখাই থানার ওসি সাইদুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

ঠাকুরগাঁও

ঠাকুরগাঁওয়ে এসএসসি পরীক্ষায় অকৃতকার্য হওয়ায় গলায় ফাঁস নিয়ে লিমা আক্তার নামে এক ছার্ত্রী আত্মহত্যা করছে। আজ রোববার দুপুরে উপজেলার তিনুয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, লিমা হরিপুর উপজেলার দ্বিমুখী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নেয়। সে একই এলাকার জহিরুল ইসলামের মেয়ে।

হরিপুর ইউপি চেয়ারম্যান আতাউর রহমান মংলা জানান, এসএসসি পরীক্ষার ফল প্রকাশের পর লিমা জানতে পারে সে ফেল করেছে। এ খবর পাওয়ার পর তার ঘরের ধর্ণার সঙ্গে ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করে।

অন্যদিকে একই উপজেলার আরেক ছাত্রী বিউটি আক্তার কীটনাশক পান করে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছে। তাকে মুমূর্ষু অবস্থায় দিনাজপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

বিউটি আক্তার হরিপুর উপজেলার বালিহাড়া গ্রামের বেলাল হোসেনের মেয়ে। সে মশানগাঁও দ্বিমুখী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্রী ছিল।

বিউটির বাবা বেলাল হোসেন বলেন, ‘আমার মেয়ে সকাল ১১টায় দিকে পরীক্ষার ফলাফল জানতে পারে সে পরীক্ষায় ফেল করেছে। এরপর আমাদের সবার অগোচরে দুপুরের দিকে কীটনাশক পান করে। কীটনাশক পান করার বিষয়টি আমরা জানার সঙ্গে সঙ্গে তাকে চিকিৎসার জন্য হরিপুর হাসপাতালে নিয়ে আসি। বিউটির শারীরিক অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় হাসপাতালের কর্তব্যরত ডাক্তার বিউটিকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে দিনাজপুর আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসাপাতালে রের্ফাড করেন।’

হরিপুর থানার ওসি আমিরুজ্জামান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

advertisement