advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

অ্যাকশন নিয়ে মুখ খুললেন বুমরাহ

ক্রীড়া ডেস্ক
২ জুন ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ১ জুন ২০২০ ২৩:৫৩
advertisement

২০১৮ সালে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে অভিষেক হয় ভারতের বর্তমান সময়ের অন্যতম পেস কা-ারি জসপ্রীত বুমরাহর। অভিষেকের পর থেকে আলো ছড়িয়ে যাচ্ছেন তিনি। ছোট রান-আপ আর অদ্ভুত বোলিং অ্যাকশনেও ব্যাটসম্যানদের খাবি খাইয়েছেন তিনি। যেখানে সব পেসারকে দেখা যায় লম্বা রানআপ নিয়ে বল করতে, সেখানে ব্যতিক্রম তিনি। ছোট রানআপ নিয়েও প্রায় দেড়শ কিলোমিটার গতিতে বল করেন তিনি। কী ভাবে এত ছোট রানআপে এত দ্রুগতির বল করেন তিনি। তা জানার আগ্রহ ছিল মানুষের কেন্দ্রবিন্দুতে। সেই সাথে অদ্ভুত বোলিং অ্যাকশনের রহস্যের কথাও জানার আগ্রহ অনেকের। আইসিসির ভিডিও সিরিজ ‘ইনসাইড আউট’ অনুষ্ঠানে দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক পেসার শন পোলক ও সাবেক ক্যারিবিয়ান পেসার ইয়ান বিশপের সঙ্গে আলোচনায় বুমরাহ নিজেই জানালেন তার রানআপের ও ‘অদ্ভুত’ বোলিং অ্যাকশনের রহস্য।

নিন্দুকরা বলেন, অদ্ভুত বোলিং অ্যাকশনের জন্যই চোটাঘাত লাগার আশঙ্কা রয়েছে যশপ্রীত বুমরাহর। তার বোলিং মন কেড়ে নিয়েছে ইয়ান বিশপের মতো প্রাক্তন তারকারও। বিশপ, শন পোলকদের সঙ্গে কথা বলার সময়ে বুমরাহ রহস্য ফাঁস করেছেন তার বোলিং অ্যাকশনের। তিনি বলেছেন, ‘ছোটবেলায় উঠোনে খেলতাম। সেখানে বেশি দৌড়ানোর জায়গা ছিল না। আমি এখন ঠিক যতটা দৌড়াই, এটাই ছিল সব চেয়ে বেশি। এর বেশি রানআপের জায়গা ছিল না।’ ছোটবেলার অভ্যাস এখনো রয়ে গিয়েছে বুমরাহর। সেই কারণেই অল্প রানআপে বল করতে দেখা যায় তাকে। ওই অল্প রানআপেই গতি তোলেন বুমরা। সেই সঙ্গে তার বোলিং অ্যাকশনও অদ্ভুত প্রকৃতির। বুমরাহ বলছেন, ‘আমি কোনো ট্রেনিং ক্যাম্পে যাইনি বা প্রথাগত কোচিং নিইনি। আজ পর্যন্ত যা শিখেছি, তার সবটাই নিজে। কখনো ভিডিও দেখে, কখনো টিভি দেখে।’

ক্যারিয়ারের শুরুতে নিজের পারফরম্যান্সের চেয়ে বোলিং অ্যাকশন নিয়েই বেশি কথা বলতে বা শুনতে হয়েছে বর্তমান বিশ্বের অন্যতম সেরা পেসার জাসপ্রিত বুমরাহকে। যতই নিয়মিত উইকেট নেন না কেন, অদ্ভুত বোলিং অ্যাকশন নিয়ে নানা কটুকথাও হজম করতে হয়েছে তাকে। শুধু তা-ই নয়, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমগুলোয় রীতিমতো প্রতিবন্ধী পর্যন্ত হলা হয়েছে বুমরাহকে। এসবে অবশ্য কখনো মাথা ঘামাননি তিনি। এমনকি বদলাননি নিজের সব সময়কার বোলিং অ্যাকশনও। এখনো সেই আগের মতো করেই সাফল্য পেয়ে যাচ্ছেন তিনি। বোলিং অ্যাকশন এ রকম অদ্ভুত হওয়ার জন্য অনেকেই তাকে অ্যাকশন বদলানোর পরামর্শ দিয়েছেন। কিন্তু বুমরা তাদের কথা শোনেননি। ভারতের তারকা পেসার বলছেন, ‘আমাকে নিয়ে অনেকেই অনেক কথা বলেছেন। আমি কারও কথা শুনিনি। আরও বেশি নিজের শক্তি বাড়ানোর চেষ্টা করেছি। আর নিজের ওপর বিশ্বাস রেখে গিয়েছি।’

ছোট রানআপেও গতি ধরে রেখেছেন বুমরাহ। তাই রানআপ বাড়ানোর কথা ভাবেনও না। বুমরাহ জানিয়েছেন, ‘বলের গতি যখন কমছে না, একই আছে, তা হলে রানআপ বাড়াতে যাব কেন?’ তবে বোলিংয়ের উন্নতির জন্য কিছু বিষয় নিয়ে সব সময়ই কাজ করেছেন এ পেসার। সেগুলোর দিকে ইঙ্গিত করে বুমরাহ বলেন, ‘আমি কিছু কিছু জিনিসে বদল এনেছি। শুরুর দিকে, ২০১৩ সালে আমি অনেক বেশি লাফাতাম, এখন তা নেই। কোনো কিছু যদি সমস্যার সৃষ্টি করে তা হলে আমি সেটা বদলে নেই, অন্যথায় সেটা ধরে রাখতে আমার সমস্যা নেই।’ ‘আমি সবার পরামর্শ শুনি, আমি অনেক বেশি জানতে চাই। তাই সিনিয়র খেলোয়াড় এবং কোচদের কাছে বারবার প্রশ্ন করতে থাকি। তাদের কাছ থেকে সাধারণ ফিডব্যাক কিংবা পরামর্শগুলো কাজে লাগানো খুব জরুরি। এতে করে যদি কাজ হয়, তা হলে কেন করব না আমি?’

তিনি আরও বলেন, ‘আমার বোলিং দেখে সবার সাধারণ ফিডব্যাক ছিল, এই ছেলে ভালোমানের বোলার হতে পারবে না। এমনকি বেশিদিন খেলতেই পারবে না। এই অ্যাকশন নিয়ে তো টিকতেই পারবে না। কিন্তু সবচেয়ে বড় বিষয় হলো, আপনার নিজের ভাবনা। এটাই আমি ধরে রেখেছি।’

advertisement